ননী গোপাল  ভট্টাচার্য্যের মহাপ্রাণে মেহেরপুরের সাংস্কৃতিক অঙ্গনে যে ক্ষতি হলো তা  অপূরণীয়

Social Share
আব্দুল্লাহ আল আমিন ধুমকেতুর  ফেসবুক থেকে
ভিনিউজ- -ভাষাসংগ্রামী,  মুক্তিযোদ্ধা, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ননীগোপাল ভট্টাচার্য অমৃতলোকবাসী হলেন।  সর্বজন শ্রদ্ধেয় ননীগোপাল বাবুর মৃত্যুতে আমরা শোকাহত। শোকাভিভূত
মেহেরপুরের সাহিত্য ও  সাংস্কৃতিক অঙ্গন। ১৯৩৩ সালে মেহেরপুরের এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্মগ্রহণকারী গোপাল বাবু ৮৭ বছরের জীবন পরিক্রমায় বহুবিধ কাজের সঙ্গে যুক্ত  ছিলেন। ছিলেন কবি, ছড়াকার, সংগীতশিল্পী ও সাংস্কৃতিক সংগঠক। তাঁর পিতা নলিনাক্ষ ভট্টাচার্য ছিলেন একজন খ্যাতিমান আইনজীবী।  ভাষা আন্দোলন,  রবীন্দ্রনাথের জন্মশতবর্ষ উদযাপন ও মুক্তিযুদ্ধে ননীগোপাল পালন করেন অসামান্য ভূমিকা।
তার মহাপ্রাণে মেহেরপুরের সংস্কৃতি অঙ্গনে যে শূন্যতা সৃষ্টি হলো, তা অপূরণীয়।
মেহেরপুরের শিল্পাঙ্গনের ‘চিরসখা, চিরবন্ধু’র আত্মার চিরশান্তি কামনা করি এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি জানাই গভীর সমবেদনা।