তারেক রহমানের স্ত্রীর মামলা নিয়ে আপিল বিভাগের আদেশ ৮ এপ্রিল

50
Social Share

বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের স্ত্রী ডা. জোবায়দা রহমানের বিরুদ্ধে অবৈধভাবে সম্পদ অর্জনের অভিযোগের মামলার বিচার চলবে কি না, সে প্রশ্নে আগামী ৮ এপ্রিল আদেশ দেবেন দেশের সর্বোচ্চ আদালত আপিল বিভাগ। প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে আপিল বিভাগ বৃহস্পতিবার এই আদেশের দিন ধার্য করেছেন। জোবায়দা রহমানের পক্ষে আইনজীবী ছিলেন সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল এজে মোহাম্মদ আলী। দুর্নীতি দমন কমিশনের(দুদক) পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট খুরশীদ আলম খান।

জ্ঞাত আয় বহির্ভূতভাবে ৪ কোটি ৮১ লাখ ৫৩ হাজার ৫শ ৬১ টাকার সম্পদ অর্জন ও সম্পদের তথ্য গোপন করার অভিযোগে তারেক রহমান, তার স্ত্রী জোবায়দা রহমান ও শাশুড়ি সৈয়দা ইকবাল মান্দ বানুর বিরুদ্ধে ২০০৭ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর রাজধানীর কাফরুল থানায় মামলা করে দুদক। মামলায় তারেক রহমানকে অবৈধভাবে সম্পদ অর্জন ও সম্পদের তথ্য গোপনে সহযোগিতার অভিযোগ আনা হয় জোবায়দা রহমান ও সৈয়দা ইকবাল মান্দ বানুর বিরুদ্ধে। এ মামলায় ২০০৮ সালের ৩১ মার্চ দুদক অভিযোগপত্র দেয়। পরে জোবায়দার আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে হাইকোর্ট ওই বছরের ৮ এপ্রিল তার বিরুদ্ধে এ মামলার কার্যক্রম দুই মাসের জন্য স্থগিত করেন এবং মামলা কেন বাতিল করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন। এ রুলের ওপর শুনানি শেষে ২০১৭ সালের ১২ এপ্রিল তা খারিজ করে রায় দেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে আট সপ্তাহের মধ্যে বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পনের নির্দেশ দেন। এ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেন জোবায়দা রহমান। এ আবেদনের ওপর আপিল বিভাগে গতকাল শুনানি সম্পন্ন হয়। এরপর আদালত আগামী ৮ এপ্রিল আদেশের জন্য দিন ধার্য করেছেন।

জোবায়দা রহমান তার স্বামী তারেক রহমানের সঙ্গে ২০০৮ সাল থেকে যুক্তরাজ্যে অবস্থান করছেন। সেখানে তাদের মেয়েও রয়েছে। জোবায়দা রহমানের বিরুদ্ধে মামলার কার্যক্রম ২০০৮ সাল থেকে স্থগিত রয়েছে।