তারেকের সাবেক এপিএস অপুর জামিন আবেদন হাইকোর্টে খারিজ

Social Share

প্রায় সোয়া আট কোটি টাকার অর্থ পাচারের অভিযোগে করা মামলায় বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সাবেক এপিএস মিয়া নুর উদ্দিন আহমেদ অপুর জামিন আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি আহমেদ সোহেলের হাইকোর্ট বেঞ্চ মঙ্গলবার এ আদেশ দেন। অপুর জামিন প্রশ্নে জারি করা রুলের ওপর চূড়ান্ত শুনানি শেষে রুল খারিজ করে দেন হাইকোর্ট।

অপুর পক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট সৈয়দ মামুন মাহবুব এবং রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের কয়েকদিন আগে ২০১৮ সালের ২৪ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় মতিঝিলের সিটি সেন্টারের ইউনাইটেড এন্টারপ্রাইজ অ্যান্ড ইউনাইটেড করপোরেশন অফিস থেকে নগদ ৮ কোটি ১৫ লাখ ৩৮ হাজার ৬৫৯ টাকা এবং বিভিন্ন ব্যাংকের চেক উদ্ধার করে র‌্যাব। উক্ত প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজার এ এম আলী হায়দার নাফিজকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ ঘটনায় ২৬ ডিসেম্বর মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইন ও সন্ত্রাস বিরোধী আইনে মামলা হয়। এই টাকা দিয়ে তারা নির্বাচনকে প্রভাবিত করার চেষ্টার ষড়যন্ত্র করছিল বলে অভিযোগ করা হয়।

মামলায় বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সাবেক এপিএস মিয়া নুর উদ্দিন আহমেদ অপু, এ এম আলী হায়দার নাফিজসহ ছয় জন ও অজ্ঞাতনামা কয়েকজনকে আসামি করা হয়। মামলায় অন্য আসামুরা হলেন- আমেনা এন্টারপ্রাইজ অ্যান্ড সার্ভিসেস লিমিটেডের মো. জয়নাল আবেদীন, মো. আলমগীর হোসেন, ইউনাইটেড এন্টারপ্রাইজের স্বত্তাধিকারী আতিকুর রহমান আতিক ও মো. মাহমুদুল হাসান। অপু একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শরীয়তপুর-৩ আসনে বিএনপি দলীয় সংসদ সদস্য প্রার্থী ছিলেন। এ মামলায় অপুকে গতবছর ৫ জানুয়ারি গ্রেপ্তার করা হয়।