টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নিলেন মাহমুদউল্লাহ

57
টেস্ট ক্রিকেট
Social Share

টেস্ট ক্রিকেট থেকে নিজেকে সরিয়ে নিলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। দীর্ঘ ফরম্যাটের টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নিলেও বাকি দুই ফরম্যাটে খেলা চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

আজ বুধবার এক বিবৃতিতে রিয়াদ বলেছেন, আমি অনেকদিন ধরেই খেলেছি এমন একটা ফরম্যাটকে বিদায় বলা সহজ নয়। আমি সবসময়ই সর্বোচ্চ জায়গায় পৌঁছাতে চেয়েছি। আমার বিশ্বাস টেস্ট ক্যারিয়ার শেষ করার এটাই সঠিক সময়।

গত জুন-জুলাইতেই জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দীর্ঘ ১৬ মাস পর টেস্ট দলে ফিরে টেস্টে দেড়শ রানের ইনিংস খেলে রিয়াদ সতীর্থদের জানিয়ে দেন অবসরের সিদ্ধান্ত। ২২০ রানের রেকর্ড গড়া ব্যবধানে জয়ের ম্যাচটিতে ম্যান অব দ্যা ম্যাচ পুরস্কার পেয়েছিলেন তিনি। দলও জয়টি তাকেই উৎসর্গ করে। তবে অবসরের ব্যাপারে কোথাও আনুষ্ঠানিক কোনো ঘোষণা দেননি তিনি। তখন রিয়াদ আনুষ্ঠানিক ঘোষণা না দিলেও ক্রিকেটের সব মহলে হারারে টেস্টকেই তার ক্যারিয়ারের শেষ টেস্ট হিসেবে গণ্য করা হয়।

২০০৯ সালের ৯ জুলাই কিংসটাউনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট অভিষেক হয়েছিল মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের। এরপর খেলে গেলেন একযুগ। অবশেষে এসে সমাপ্তি রেখা টানলেন ১২ বছরের ক্যারিয়ারের।

টেস্ট ক্রিকেট থেকে নিজেকে সরিয়ে নিলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। দীর্ঘ ফরম্যাটের টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নিলেও বাকি দুই ফরম্যাটে খেলা চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

আজ বুধবার এক বিবৃতিতে রিয়াদ বলেছেন, আমি অনেকদিন ধরেই খেলেছি এমন একটা ফরম্যাটকে বিদায় বলা সহজ নয়। আমি সবসময়ই সর্বোচ্চ জায়গায় পৌঁছাতে চেয়েছি। আমার বিশ্বাস টেস্ট ক্যারিয়ার শেষ করার এটাই সঠিক সময়।

গত জুন-জুলাইতেই জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দীর্ঘ ১৬ মাস পর টেস্ট দলে ফিরে টেস্টে দেড়শ রানের ইনিংস খেলে রিয়াদ সতীর্থদের জানিয়ে দেন অবসরের সিদ্ধান্ত। ২২০ রানের রেকর্ড গড়া ব্যবধানে জয়ের ম্যাচটিতে ম্যান অব দ্যা ম্যাচ পুরস্কার পেয়েছিলেন তিনি। দলও জয়টি তাকেই উৎসর্গ করে। তবে অবসরের ব্যাপারে কোথাও আনুষ্ঠানিক কোনো ঘোষণা দেননি তিনি। তখন রিয়াদ আনুষ্ঠানিক ঘোষণা না দিলেও ক্রিকেটের সব মহলে হারারে টেস্টকেই তার ক্যারিয়ারের শেষ টেস্ট হিসেবে গণ্য করা হয়।

২০০৯ সালের ৯ জুলাই কিংসটাউনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট অভিষেক হয়েছিল মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের। এরপর খেলে গেলেন একযুগ। অবশেষে এসে সমাপ্তি রেখা টানলেন ১২ বছরের ক্যারিয়ারের।