টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ : ভারত-পাকিস্তান ম্যাচের আগে শোয়েবকে কটাক্ষ হরভজনের

60
বিশ্বকাপ
Social Share

বিশ্বকাপ মঞ্চে যতবারই ভারত ও পাকিস্তান মুখোমুখি হয়েছে, প্রতিবারই শেষ হাসি হেসেছে ভারত। ইমরান খান যেবার পাকিস্তানকে চ্যাম্পিয়ন করেন, সেই ১৯৯২ সালের বিশ্বকাপেও ভারত হারিয়েছিল পাকিস্তানকে। এবার এগিয়ে আসছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ।

আগামী ২৪ অক্টোবর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে মুখোমুখি হবে ভারত বনাম পাকিস্তান। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বল গড়ানোর আগে থেকেই শুরু হয়ে গেছে দুই দেশের সাবেক ক্রিকেটারদের মধ্যে কথার লড়াই।

স্পম্প্রতি একটি সাক্ষাতকারে ভারতের সাবেক অফ-স্পিনার হরভজন সিং পাকিস্তানের সাবেক পেসার শোয়েব আখতারকে কটাক্ষ করেছেন। হরভজন সিং ও শোয়েব আখতারের মধ্যে খেলার মাঠের লড়াইয়ের কথা সবাই জানে। এই দুইজনের মধ্যে মাঠেই তর্ক লেগে গিয়েছিল একাধিকবার। ২০১০ সালে এশিয়া কাপে শোয়েবকে ছক্কা হাঁকিয়ে ভারতকে জিতিয়েছিলেন হরভজন। এরপর হরভজন ও শোয়েব বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন।

সেই হরভজন “রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস”-কে খোঁচা দিয়ে বলেছেন, “আমিতো শোয়েব আখতারকে বলেছি খেলার কী দরকার পাকিস্তানের, বরং তোমরা তো আমাদের ওয়াকওভার দিতে পারো। খেললে তোমরা আবার হারবে। তাতে তোমরাই হতাশ হবে। আমাদের দল দারুণ শক্তিশালী। তোমাদের খুব সহজেই হারিয়ে দেবে। তাই খেলে আর কী দরকার।”

হরভজনের কটাক্ষের জবাব অবশ্য এখনও দেননি শোয়েব। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে হরভজনের আক্রমণ তার কানে গেলে নিশ্চুপ থাকবেন না শোয়েব। জবাব তিনি দেবেনই। পাকিস্তানের ক্রিকেটপ্রেমীরা শোয়েবের উত্তরের অপেক্ষায় এখন।

উল্লেখ্য, এখন পর্যন্ত ভারত ও পাকিস্তান মোট ১২ বার মুখোমুখি হয়েছে বিশ্বকাপে। ওয়ানডে বিশ্বকাপে সাত বার। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পাঁচ বার। প্রতিবারই ভারতের কাছে হার মানতে হয়েছে পাকিস্তানকে।

স্পম্প্রতি একটি সাক্ষাতকারে ভারতের সাবেক অফ-স্পিনার হরভজন সিং পাকিস্তানের সাবেক পেসার শোয়েব আখতারকে কটাক্ষ করেছেন। হরভজন সিং ও শোয়েব আখতারের মধ্যে খেলার মাঠের লড়াইয়ের কথা সবাই জানে। এই দুইজনের মধ্যে মাঠেই তর্ক লেগে গিয়েছিল একাধিকবার। ২০১০ সালে এশিয়া কাপে শোয়েবকে ছক্কা হাঁকিয়ে ভারতকে জিতিয়েছিলেন হরভজন। এরপর হরভজন ও শোয়েব বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন।

সেই হরভজন “রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস”-কে খোঁচা দিয়ে বলেছেন, “আমিতো শোয়েব আখতারকে বলেছি খেলার কী দরকার পাকিস্তানের, বরং তোমরা তো আমাদের ওয়াকওভার দিতে পারো। খেললে তোমরা আবার হারবে। তাতে তোমরাই হতাশ হবে। আমাদের দল দারুণ শক্তিশালী। তোমাদের খুব সহজেই হারিয়ে দেবে। তাই খেলে আর কী দরকার।”

হরভজনের কটাক্ষের জবাব অবশ্য এখনও দেননি শোয়েব। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে হরভজনের আক্রমণ তার কানে গেলে নিশ্চুপ থাকবেন না শোয়েব। জবাব তিনি দেবেনই। পাকিস্তানের ক্রিকেটপ্রেমীরা শোয়েবের উত্তরের অপেক্ষায় এখন।

উল্লেখ্য, এখন পর্যন্ত ভারত ও পাকিস্তান মোট ১২ বার মুখোমুখি হয়েছে বিশ্বকাপে। ওয়ানডে বিশ্বকাপে সাত বার। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পাঁচ বার। প্রতিবারই ভারতের কাছে হার মানতে হয়েছে পাকিস্তানকে।