টিকা নিয়ে নতুন ঘোষণা রাশিয়ার, এক ডোজই রুখে দেবে করোনার সব ভ্যারিয়েন্ট

56
Social Share

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের টিকা নিয়ে নতুন ঘোষণা দিল রাশিয়া। তাদের উদ্ভাবিত স্পুটনিক-ভি টিকার আরেকটি সংস্করণ আনল দেশটি। এক ডোজের এই টিকার নাম দেওয়া হয়েছে স্পুটনিক লাইট। বৃহস্পতিবার টিকাটির অনুমোদন দেয় রাশিয়া।

মস্কো বলছে, করোনা প্রতিরোধে এক ডোজের এই টিকা ৮০ শতাংশ কার্যকারিতা দেখিয়েছে। লড়াই করতে পারবে করোনার সব ভ্যারিয়েন্টের সঙ্গে। তবে স্পুটনিকের দুই ডোজ টিকার চেয়ে এক ডোজের কার্যকারিতার কিছুটা ফারাক থাকবে বলে জানা গেছে।

রাশিয়ার টিকা প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান গামালিয়া রিসার্চ ইনস্টিটিউটের তৈরি স্পুটনিক লাইটের অর্থায়ন করেছে দেশটির ডিরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড-আরডিআইএফ।

এক বিবৃতিতে সংস্থাটি জানিয়েছে, দুই ডোজের টিকা স্পুটনিক ভি টিকা ৯১ দশমিক ৬ শতাংশ কার্যকার হলেও স্পুটনিক লাইট করোনা প্রতিরোধে ৮০ শতাংশ কার্যকারিতা দেখিয়েছে। গত বছরের ৫ ডিসেম্বর থেকে চলতি বছরের ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত চলা পরীক্ষার ওপর ভিত্তি করেই স্পুটনিকের একটি ডোজকে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে বলে জানায় মস্কো।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, বিশ্বের অন্যান্য দেশের চেয়ে আমাদের এ ভ্যাকসিন অনেক উন্নত। এই ভ্যাকসিন ব্যবহারে কোনও ঝুঁকি নেই। শুধু আমরাই বলছি না, ইউরোপীয় ইউনিয়নের বিশেষজ্ঞরাও আমাদের ভ্যাকসিনের প্রশংসা করেছে। বৈশ্বিক এই মহামারী মোকাবিলায় আমাদের ভ্যাকসিন সবার জন্য উন্মুক্ত রেখেছি।

বর্তমানে বিশ্বের ৬০টি দেশ রাশিয়ার করোনা টিকা স্পুটনিক ফাইভের অনুমোদান দিয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত ইউরোপীয় ইউনিয়ন এবং যুক্তরাষ্ট্র টিকাটির অনুমোদন দেয়নি। কিছু পশ্চিমা দেশ মনে করে, রাশিয়া নিজের প্রভাব বিস্তারে টিকাটিকে ব্যবহার করতে পারে। আর টিকাটি যথাযথ বৈজ্ঞানিক ধাপ না মেনে দ্রুত তৈরি করা হয়েছে। যদিও এরইমধ্যে বিশ্বের দুই কোটি মানুষ স্পুটনিক ফাইভ টিকা গ্রহণ করেছে।