টাঙ্গাইলে বসত বাড়িতে হামলাকারীদের মোটরসাইকেল পুড়িয়ে দিল জনতা

206
Social Share

কাজল আর্য,স্টাফ রিপোর্টার: টাঙ্গাইলের দেলদুয়ারে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে রাতের আঁধারে বসত বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে দুই নারীকে পিটিয়ে আহত করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে উপজেলার এলাসিন ইউনিয়নের পাছ এলাসিন গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে।
জানা যায়, পাছ এলাসিন গ্রামের মৃত ছালাম মিয়ার ছেলে সাইফুল ইসলাম ও মৃত তোতা মিয়ার ছেলে খন্দকার লালন মিয়ার সঙ্গে বসত বাড়ির জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল। বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে ১১ টি মোটরসাইকেল যোগে অনন্ত ৩০ জন বহিরাগত লালন মিয়ার পক্ষে সাইফুল ইসলামের বাড়িতে হামলা ও ভাংচুর চালায়। সাইফুল ইসলামের অনুপস্থিতিতে তার স্ত্রী ছালমা বেগম ও মা খোদেজাকে বেধরক পেটায়।
এ সময় মসজিদের মাইকে ডাকাত ধরা পড়েছে বলে ঘোষনা দেয়া হয়। ঘোষনায় এলাকাবাসী এগিয়ে এসে ওই বাড়িতে ১৭ জনকে ৮টি মোটর সাইকেলসহ অবরুদ্ধ করে। বিক্ষুব্ধ জনতা ৩টি মোটরসাইকেল পুড়িয়ে দেয় এবং ৫টি মোটরসাইকেলে ভাংচুর চালায়। খবর পেয়ে পুলিশ জনতার রোষ থেকে ১৭ জনকে উদ্ধার করে । আহত ২ নারীকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা করানো হচ্ছে।
দেলদুয়ার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সরকার আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন পারিবারিক জমি সংক্রান্ত বিষয়ে সৃষ্ট ঘটনায় এলাকাবাসী মোটরসাইকেলসহ হামলাকারীদের আটক করে। তাৎক্ষনিকভাবে তাদেরকে উদ্ধার করা হয়েছে। এর আগেই জনতা ৩টি মোটরসাইকেল পুড়িয়ে দেয়।
ওসি তিনি আরো বলেন তবে এবিষয়ে কেউ থানায় লিখিত অভিযোগ দেয় নি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।