টাঙ্গাইলের বঙ্গবন্ধু সেনানিবাসে আন্তর্জাতিক সামরিক প্রশিক্ষণ এক্সারসাইজ শান্তির অগ্রসেনা এর উদ্বোধন

43
Social Share
কাজল আর্য,স্টাফ রিপোর্টার:  জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে টাঙ্গাইলের বঙ্গবন্ধু সেনানিবাসে আন্তর্জাতিক সামরিক প্রশিক্ষণ এক্সারসাইজ শান্তির অগ্রসেনা এর উদ্বোধন করা হয়েছে। রোববার (৪ এপ্রিল) সকালে সামরিক প্রশিক্ষণের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ এসবিপি (বার), বিএসপি, বিজিএম, পিবিজিএম, বিজিবিএমএস, পিএসসি, জি।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন ১৯ পদাতিক ডিভিশনের ঘাটাইল এরিয়া কমান্ডার মেজর জেনারেল সৈয়দ তারেক আহমেদ এডব্লিউসি, পিএসসি, বিগ্রেডিয়ার জেনারেল খন্দকার কেএম আসাদুল হকসহ অন্যান্য উর্দ্ধতন সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।
বহুমাত্রিক এই সামরিক অনুশীলনে ১১ টি দেশের প্রতিনিধি যোগদান করেন। প্রশিক্ষণে বাংলদেশ, ভারত ও শ্রীলংকা হতে ৩০ জন, ভুটান হতে ৩৩ জনসহ মোট ১২৩ জন সেনাসদস্য যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স, নেপাল, তুরস্ক, সৌদি, আরব, ভারত শ্রীলংকা ও ভুটানের ১৯ জন অবজারভার অংশ গ্রহণ করছেন।
বিশ্ব শান্তি বজায় রাখতে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে অংশগ্রহণকারী দেশসমূহের সক্ষমতা বৃদ্ধিই এই প্রশিক্ষণের মূল উদ্দেশ্য। এই প্রশিক্ষণে অংশ গ্রহণকারী দেশ সমূহ পারস্পারিক জ্ঞান এবং প্রযুক্তিগগত তথ্য বিনিময়ের মাধ্যমে একটি সহযোগী কাজের তৈরির মাধ্যমে প্রশিক্ষণের লক্ষ্য অর্জনে সচেষ্ট হবে। উক্ত প্রশিক্ষণে সামরিক অপারেশনের সাথে সংশ্লিষ্ট গুরত্বপূর্ন বিষয়ে বিশেষজ্ঞ ব্যক্তিবর্গের আলোচনা ও বিভিন্ন প্রকার প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে। প্রশিক্ষণটিতে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে বাংলাদেশ কর্তৃক ব্যবহৃত অত্যাধুনিক অস্ত্র-সরাঞ্জামাদি ও মিলিটারি গ্যাজেটসমূহ সমরাস্ত্র প্রদর্শনীর মাধ্যমে সকলের নারী সদস্যদের বিভিন্ন কার্যক্রম তুলে ধরা হবে। এই অনুশীলন বহির্বিশ্বে বাংলাদেশের সুনামকে বহুলাংশে বৃদ্ধি করবে বলে প্রত্যাশা করা যায়।
সামরিক প্রশিক্ষণটি আগামী ১২ এপ্রিল পর্যন্ত চলমান থাকবে।