‘জিল্লুর রহমান মেধা, শ্রম ও বুদ্ধিমত্তা দিয়ে দেশের শীর্ষস্থানে পৌঁছেছিলেন’

71
Social Share

প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের অষ্টম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে শনিবার (২০ মার্চ) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। জিল্লুর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী পালন কমিটি আয়োজিত এই আলোচনা সভায় ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের নেতারা তার স্মৃতিচারণ করেন এবং তার আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন।

আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী বলেন, ‘জিল্লুর রহমান তার মেধা, পরিশ্রম এবং বুদ্ধিমত্তা দিয়ে দেশের শীর্ষস্থানে পৌঁছেছিলেন। তিনি সবার জন্য অনুকরণীয়। দলের জন্যও তিনি জীবনের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত কাজ করে গেছেন। জাতি আজ তাকে শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করে।’

প্রধান আলোচকের বক্তব্যে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, ‘২০০৪ সালে গ্রেনেড হামলায় জিল্লুর রহমানের সহধর্মিনী আইভি রহমানকে হত্যা করা হয়েছিল। যারা আজ গণতন্ত্রের কথা বলেন, তারাই এই নারকীয় হত্যাকাণ্ডে জড়িত ছিলেন। আজ জিল্লুর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে তাদের এই অপকর্মের জন্য ক্ষমা চাইতে হবে। তারপর তারা যদি গণতন্ত্রের কথা বলেন, তখন মানুষের কাছে সেটা যৌক্তিক মনে হতে পারে ।

আওয়ামী লীগ নেতা  এম এ করিমের সভাপতিত্বে ও লায়ন মশিউর রহমানের  সঞ্চালনায় আলোচনাসভায় বক্তব্য রাখেন  পানি সম্পদ উপমন্ত্রী  এ,কে এম এনামুল  হক শামীম, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমেদ  হোসেন, সংসদ সদস্য  অ্যাডভোকেট নুরুল  আমিন রহুল,আওয়ামী লীগ নেতা বলরাম পোদ্দার, বঙ্গবন্ধু  সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক অরুন সরকার রানা, কেন্দ্রীয়  যুবলীগ নেতা সাংবাদিক মানিক লাল ঘোষ,রোকন উদ্দিন পাঠানসহ নেতৃবৃন্দ।