৭ ডিসেম্বর ভর্তি শুরু জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে

70
জাহাঙ্গীরনগর
Social Share

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষে ভর্তি শুরু হবে আগামী ৭ ডিসেম্বর। ভর্তি কার্যক্রম চলবে ১২ ডিসেম্বর পর্যন্ত।

মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ভর্তি পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব ও ডেপুটি রেজিস্ট্রার (শিক্ষা) আবু হাসান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ডেপুটি রেজিস্ট্রার আবু হাসান জানান, আগামী ২৬ থেকে ৩০ নভেম্বর  জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘এ’ থেকে ‘আই’ ইউনিট পর্যন্ত ভর্তিচ্ছুদের সাক্ষাৎকার নেওয়া হবে। এ সময়ে ভর্তিচ্ছুদের বিভাগ পছন্দক্রমের ফরমও পূরণ করতে হবে। অন্যদিকে ২৮ থেকে ৩০ নভেম্বর “সি ১” ইউনিটের (নাটক ও নাট্যতত্ত্ব এবং চারুকলা) ব্যবহারিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ৬ ডিসেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের সব ইউনিটে ভর্তির জন্য নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হবে।

ডেপুটি রেজিস্ট্রার আরো জানান, ৭ থেকে ১২ ডিসেম্বরের মধ্যে শিক্ষার্থীদের অনলাইনে ভর্তি হতে হবে। এরপর ২০ ডিসেম্বর ভর্তি শিক্ষার্থীদের মাইগ্রেশন ও ২১ ডিসেম্বর দ্বিতীয় মেধাতালিকা প্রকাশ করা হবে। ২৬ থেকে ২৯ ডিসেম্বরের মধ্যে দ্বিতীয় মেধাতালিকায় স্থান পাওয়া শিক্ষার্থীদের অনলাইনে ভর্তি হতে হবে।

এছাড়া, ১ থেকে ৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত বিভিন্ন কোটায় ভর্তির জন্য অনলাইনে আবেদন নেওয়া হবে। তবে ২ থেকে ১২ ডিসেম্বরের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অফিসের শিক্ষা শাখায় কোটার আবেদনের প্রিন্টেড কপির সঙ্গে কোটার স্বপক্ষের প্রমাণপত্র জমা দিতে হবে।

ডেপুটি রেজিস্ট্রার আবু হাসান জানান, আগামী ২৬ থেকে ৩০ নভেম্বর ‘এ’ থেকে ‘আই’ ইউনিট পর্যন্ত ভর্তিচ্ছুদের সাক্ষাৎকার নেওয়া হবে। এ সময়ে ভর্তিচ্ছুদের বিভাগ পছন্দক্রমের ফরমও পূরণ করতে হবে। অন্যদিকে ২৮ থেকে ৩০ নভেম্বর “সি ১” ইউনিটের (নাটক ও নাট্যতত্ত্ব এবং চারুকলা) ব্যবহারিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ৬ ডিসেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের সব ইউনিটে ভর্তির জন্য নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হবে।

ডেপুটি রেজিস্ট্রার আরো জানান, ৭ থেকে ১২ ডিসেম্বরের মধ্যে শিক্ষার্থীদের অনলাইনে ভর্তি হতে হবে। এরপর ২০ ডিসেম্বর ভর্তি শিক্ষার্থীদের মাইগ্রেশন ও ২১ ডিসেম্বর দ্বিতীয় মেধাতালিকা প্রকাশ করা হবে। ২৬ থেকে ২৯ ডিসেম্বরের মধ্যে দ্বিতীয় মেধাতালিকায় স্থান পাওয়া শিক্ষার্থীদের অনলাইনে ভর্তি হতে হবে।

এছাড়া, ১ থেকে ৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত বিভিন্ন কোটায় ভর্তির জন্য অনলাইনে আবেদন নেওয়া হবে। তবে ২ থেকে ১২ ডিসেম্বরের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অফিসের শিক্ষা শাখায় কোটার আবেদনের প্রিন্টেড কপির সঙ্গে কোটার স্বপক্ষের প্রমাণপত্র জমা দিতে হবে।