চীনের দুঃসাহসের যোগ্য জবাব দিতে লাদাখে মিসাইল মোতায়েন করল ভারত

Social Share

নয়া দিল্লীঃ ভারত চীনের (India China) মধ্যে বেড়ে চলা উত্তেজনা দেখে সেন প্রধান মনোজ মুকুন্দ নরবানে দুইদিন লাদাখ সফরে ছিলেন। সেনা প্রধানের সফরের একদিন পর LAC-তে চীনের লড়াকু বিমান আর হেলিকপ্টারের বেড়ে চলা গতিবিধির মধ্যে ভারতীয় সেনা লাদাখে (Ladakh) ক্ষেপণাস্ত্র (Air defense missile system) মোতায়েন করল। সরকারি সুত্র অনুযায়ী, পূর্ব লাদাখ সেক্টরে বায়ুসেনা আর স্থলসেনা চীনের যেকোন দুঃসাহসকে কড়া জবাব দিতে এই মিসাইল মোতায়েন করেছে।

https://platform.twitter.com/widgets.js

লাদাখে উত্তেজনা বেড়ে যাওয়ার পর ভারতীয় বায়ুসেনা সীমান্তবর্তী এলাকায় এর আগেও শুখোই আর মিরাজের মতো যুদ্ধ বিমান মোতায়েন করেছিল। এছাড়াও লড়াকু অ্যাপাচে বিমানও লাদাখের আকাশে গর্জন করছে। শুধু তাই নয়, চীনকে শিক্ষা দেওয়ার জন্য ভারতের ঘাতক টি-৯০ ট্যাংক ও মোতায়েন হয়েছে। এছাড়াও বিশ্বের সবথেকে শক্তিশালী মাউন্টেন ফোর্সকে লাদাখে মোতায়েন করেছে ভারত।

চীনের গতিবিধির কথা মাথায় রেখে ভারত এয়ার ডিফেন্স মিসাইলকে সীমান্তে মোতায়েন করেছে। এই ক্ষেপণাস্ত্রের সাহায্যে আকাশে দ্রুত গতিতে চলা লড়াকু বিমান এবং ড্রোনকে সহজেই তছনছ করা যাবে। পাহাড়ি এলাকায় যাতে এই মিসাইল ভালোমতো কাজ করে, সেই জন্য এই মিসাইলে অনেক বদল আনা হয়েছে। এর সাথে সাথে বায়ুসেনা লড়াকু বিমান গুলোও পূর্ব লাদাখে ব্যাপক ভাবে সক্রিয় হয়েছে। সীমান্ত এলাকায় চীনের সবরকম দুঃসাহসকে জবাব দিতে বায়ুসেনা কড়া প্ল্যান বানিয়েছে।