চিনের সঙ্গে কথায় কাজ না হলে সেনা অভিযানের পথ খোলা রয়েছে, হুঁশিয়ারি CDS বিপিন রাওয়াতের

Social Share

নয়াদিল্লি: লাদাখ ইস্যুতে চিনের সঙ্গে আলোচনা চলছে। চিন বারবার প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা থেকে সেনা সরিয়ে নেওয়ার কথা বললেও কথা রাখছে না। বরং আরও আগ্রাসী মনোভাব দেখাচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ (CDS) বিপিন রাওয়াত জানালেন, চিনের বিরুদ্ধে সামরিক পদক্ষেপ নেওয়ার দরজা খোলা আছে। তবে সামরিক স্তরে আলোচনা এবং কূটনৈতিক প্রক্রিয়া ফলপ্রসূ না হলে তবেই এই পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

সংবাদসংস্থা এএনআইকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বিপিন রাওয়াত বলেন, লাদাখে চিনা আগ্রাসন ঠেকাতে সামরিক পদক্ষেপের পথ খোলা রয়েছে। কিন্তু সেনা ও কূটনৈতিক পর্যায়ে আলোচনা ব্যার্থ হলে তবেই ওই পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

বিপিন রাওয়াত বলেন, প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখার অবস্থান নিয়ে মতভেদ থাকায় সেখানে লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটেছে। এরকম লঙ্ঘন যাতে অনুপ্রবেশে পরিণত না হয়, তার উপর নজর রাখা এবং তা রোখার দায়িত্ব আছে প্রতিরক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলির। সরকারের তরফে শান্তিপূর্ণভাবে সমস্যা সমাধানের উদ্দোগ নেওয়া হয়েছে। প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর স্বাভাবিক অবস্থা ফিরিয়ে আনতে যাবতীয় পদক্ষেপ গ্রহণের পাশাপাশি সামরিক পদক্ষেপেরও জন্য সবসময়ে প্রস্তুত রয়েছে বাহিনী।

বিপিন রাওয়াত জানান, লাদাখে চিনা সেনা যাতে স্বাভাবিক অবস্থা ফিরিয়ে আনে, সেই লক্ষ্যে চেষ্টা চালাচ্ছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং, জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল-সহ জাতীয় সুরক্ষার জন্য যুক্ত আধিকারিকরা।

উল্লেখ্য, লাদাখের প্যাংগং এলাকায় ফিঙ্গার ফোর পর্যন্ত দখলে রয়েছে ভারতের। ফিঙ্গার আট থেকে ফিঙ্গার পাঁচ পর্যন্ত ক্রমশ এগিয়ে এসেছে চিনের সেনা। ভারতের আপত্তি সেখানেই। শেষ বৈঠকে চিন জানিয়েছে, ফিঙ্গার ৪ থেকে ভারত সরে এলে ফিঙ্গার পাঁচ থেকে তারাও সরে যাবে। চিনা সেনার ওই প্রস্তাব উড়িয়ে দিয়েছে ভারত। ভারতের দাবি,প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা থেকে দুই দেশের সেনাকে পুরনো অবস্থানে ফিরে যেতে হবে।