চিনের চোখরাঙানি উপেক্ষা করেই গালওয়ান নদীর উপর সেতুর কাজ শেষ করল সেনা

Social Share

লাদাখ: চিনের প্রবল আপত্তি উপেক্ষা করেই পূর্ব লাদাখে গালওয়ান নদীর উপরে সেতুর কাজ শেষ করল ভারত। উল্লেখ্য, গালওয়ান উপত্যকায় সংঘর্ষস্থলের কাছেই এই সেতু। গালওয়ান নদীর উপরে নির্মাণ করা এই ৬০ মিটার সেতু দীর্ঘ। এই সেতুটিই চিনের প্রধান আপত্তির কারণ ছিল।

প্রসঙ্গত, গত ১৫ জুন রাতে গালওয়ানের যে ১৪ নম্বর পেট্রোলিং পয়েন্টের কাছে চিনা সেনার সঙ্গে সংঘর্ষে ২০ জন ভারতীয় সেনা শহিদ হয়েছেন। তার ঠিক কাছেই এই ৬০ মিটার দীর্ঘ সেতু। ভারতীয় সেনার তরফে জানানো হয়েছে, বৃহস্পতিবারই এই সেতু নির্মাণের কাজ শেষ হয়েছে।

ভারতীয় সেনাবাহিনী এই বছরের মধ্যেই দরবুক থেকে শৌক উপত্যকা হয়ে দৌলত বেগ ওল্ডি পর্যন্ত ২৫৫ কিলোমিটার দীর্ঘ কৌশলগত রাস্তা নির্মাণের কাজ শেষ করতে চাইছে। সেই রাস্তারই অংশ এই সেতুটি। মোট ৮ টি সেতু থাকছে এই সড়কপথে। রাস্তাটি নির্মাণ হয়ে গেলে লেহ থেকে দৌলত বেগ অল্ডিতে পৌঁছতে সময় লাগবে মাত্র ছয় ঘণ্টা। যার ফলে সুবিধা হবে সেনাবাহিনীর।

তাই বলা যায়, এই সেতু নির্মাণের কাজ শেষ হওয়ায় প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা সংলগ্ন অঞ্চলে নিজেদের পরিকাঠামো আরও শক্তিশালী করল ভারতীয় সেনা৷ গত প্রায় দুই দশক ধরেই এই রাস্তা তৈরির ভাবনা চিন্তা করছে ভারত সরকার। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ক্ষমতায় আসার পর থেকে এই রাস্তা নির্মাণে বিশেষ জোর দেওয়া হয়। সম্প্রতি প্রতিরক্ষামন্ত্রীর অনুরোধে বিশেষ ট্রেনে ও বিমানে করে নির্মাণকর্মীদের আনা হয়েছে।

ভারতীয় সেনার এক শীর্ষ কর্তা জানান, লাদাখের দুর্গম ওই এলাকায় কৌশলগত দিক দিয়ে নজরদারি এবং নিরাপত্তার জন্য ভারতীয় সেনার কাছে এই সেতুর গুরুত্ব অপরিসীম৷ ভবিষ্যতেও প্রয়োজন অনুযায়ী ওই অঞ্চলে পরিকাঠামো উন্নয়নের কাজ চালিয়ে যাওয়া হবে৷