গালওয়ান সংঘর্ষে মৃত্যু হয়েছিল ৬০ চিনা জওয়ানের, দাবি মার্কিন সংবাদমাধ্যমের

Social Share

ওয়াশিংটন: গত ১৫ জুন পূর্ব লাদাখের গালওয়ান ভারত ও চিনা সেনার মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। ওই সংঘর্ষে ২০ ভারতীয় সেনা জওয়ান শহিদ হয়। তবে চিন সরকার সেদেশের সেনার হতাহতের সংখ্যা সামনে আনেনি। এবার গালওয়ান সংঘর্ষ নিয়ে বড়সড় তথ্য সামনে আনল মার্কিন সংবাদপত্র নিউজউইক

মার্কিন সংবাদপত্র নিউজউইকে প্রকাশিত প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, গালওয়ান উপত্যকায় সংঘর্ষে চিনের প্রায় ৬০ জন সেনাকর্মীর মৃত্যু হয়েছে। তাঁদের প্রকাশিত খবরে রীতিমত চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। যদিও এই খবর নিয়ে এখনও পর্যন্ত কোনও মন্তব্য করেনি চিন। ভারতের তরফেও কিছু বলা হয়নি।

নিউজউইকের প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, সীমান্ত ইস্যুতে বর্তমানে ভারত ও চিনের মধ্যে তীব্র উত্তেজনা বিরাজ করেছে। স্যাটেলাইট চিত্রে দেখা যাচ্ছে, লাদাখ সীমান্তে চিন নিজেদের উপস্থিতি বিপুল পরিমাণ বাড়িয়ে চলেছে। সেনাবাহিনী ও সামরিক অস্ত্র প্রচুর পরিমাণে মোতায়েন করছে তারা।

এদিকে, চিনা সেনাদের উপর নজর রাখতে লাদাখের ফিঙ্গার ৪-এর পার্বত্য চূড়া ইতিমধ্যেই ভারত দখল করে নিয়েছে। প্যাংগং লেক-এর উত্তর দিকে অবস্থিত ফিঙ্গার ৪ থেকে ফিঙ্গার ৮ পর্যন্ত চিনা সেনা উপস্থিত রয়েছে। তবে ফিঙ্গার ৪-এর পার্বত্য চূড়া ভারতীয় সেনা দখল করায় চিনের দুশ্চিন্তা বেড়েছে।

চিনা সেনার ওপর নজরদারি বাড়াতে পার্বত্য শৃঙ্গ ও কৌশলগত ঘাঁটিগুলিতে অতিরিক্ত সেনা ও যুদ্ধ সরঞ্জাম পাঠিয়েছে ভারতীয় সেনা। ভারতের অভিযোগ, গালওয়ান সংঘর্ষের আগে ফিঙ্গার-৮ এর পিছনে সিরজেপ ও খুরনার ফোর্টে চিনা সেনা মোতায়েন থাকতো। কিন্তু এখন ফিঙ্গার ৫ পর্যন্ত শিবির তৈরি করে চিনের সেনা স্থিতাবস্থায় বদলের চেষ্টা করেছে। শান্তি সমঝোতা অনুসারে, দুই দেশেই সম্মতি ছাড়া কোনও ধরনের বর্ডার ফর্টিফিকেশন করতে পারবে না। চিন সেই চুক্তি লঙ্ঘন করছে।