গাজীপুর সিটিতে সালমান শাহের নামে বাসস্ট্যান্ড

4
Social Share

বাস স্ট্যান্ডের নাম সালমান শাহ স্টেশন। ২৪ বছর আগে বাংলাদেশের চলচ্চিত্র থেকে যে নক্ষত্র হারিয়ে গিয়েছিল তাকে স্মরণ করে আজও এই দেশের হাজার মানুষ চোখের জল ফেলে, উন্মত্ত হয়। সালমানকে ঘিরে যে আবেগ তা বর্ণনার মতো নয়। সালমানকে ঘিরে কেউ রিসোর্ট বানান, বিলবোর্ডে প্রিয় নায়কের ছবি টানিয়ে দেন, কেউ বা মাথায় সালমানের মতো কাপড় বেঁধে চলেছেন সেই দীর্ঘ সময় ধরে।

এবার এক ভক্ত সালমান শাহের নামে একটি বাসস্ট্যান্ডের নামকরণ করলেন। গাজীপুর  সিটি করপোরেশন এলাকায় স্টেশনের নামকরণ করা হয়েছে ‘ অমর মহানায়ক সালমান শাহ স্টেশন’।

ডিএম মাসুদ নামের একজন ভক্ত সাম্প্রতিক সময়ে এই কাণ্ড ঘটিয়েছেন। গাজীপুরের কাশিমপুর থানাধীন ৫নং ওয়ার্ডের সুরাবাড়ি এলাকায় ওই বাস স্টেশনে হাজার হাজার মানুষ উঠছেন নামছেন, আর এমন বাস স্টেশনের নাম পেয়ে যাত্রীরাও বিমোহিত। পূর্বে এই জায়গার নাম জারা কম্পোজিট গেট নবাম হলেও এখন সালমান শাহ স্টেশন বলেই সবাই চেনেন।

কেন এই বাস স্টপেজ? এমন প্রশ্নের উত্তরে কালের কণ্ঠকে ডিএম মাসুদ বলেন, ‘আসলে এই এই বাস স্ট্যান্ডের নাম ছিল জারা কম্পোজিট গেট। কিন্তু ওই গার্মেন্টস বন্ধ হয়ে যাওয়ায়, পাশে থাকা নাভানা গার্মেন্টসের কারণে ঠিক জায়গায় যাত্রীরা ওঠানামা করতে পারতো না। তখন মনে হলো, একটি নির্দিষ্ট নাম দিলে যাত্রীরা বিভ্রান্ত হবেন না। তাই আমি গত তিন বছর আগে এই বাসস্ট্যান্ডের নামকরণ করেছি অমর মহানায়ক সালমান শাহ বাস স্টেশন।

সালমান শাহ নামকরণের কারণ হিসেবে মাসুদ বলেন, ‘আমি একজন সালমান ভক্ত। আমার কাছে কেয়ামত সে কেয়ামত তাকের আমির খানের চেয়ে সালমানের অভিনয় অনেক বেশি ভালও মনে হয়েছে। এই ছবি আমি তিনবার দেখেছি। প্রতিবার মুগ্ধ হয়েছি। আমি সালমানের স্টাইল নয় অভিনয়ের প্রতি মুগ্ধ হই। কিন্তু সালমানের মৃত্যুর খবর আমাকে বিমর্ষ করে দেয়। আমি সালমানকে মনে করার চেষ্টা করি। এর আগে সালমান শাহ স্মৃতি গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট করেছি, সালমান শাহ স্মৃতি ভলিবল টুর্নামেন্ট করেছি, সালমান শাহ স্মৃতি ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্টও করেছি। সালমান আমার হৃদয়ে আজীবন বেঁচে থাকবেন।’

বাসস্ট্যান্ডে সাইনবোর্ড লাগানো হয়েছে। একটা নির্দিষ্ট নাম থাকায় এখন যাত্রীরা বিভ্রান্ত হন না বলে জানালেন মাসুদ। আশেপাশে গার্মেন্টস থাকায় প্রতিদিন কয়েক হাজার যাত্রীরা সালমান শাহ স্টেশন থেকে বাসে  ওঠানামা করেন।