গণভবন জনগণের ভবন, ডিপ্লোমা প্রকৌশলীদের গণভবনে দাওয়াত দিলেন প্রধানমন্ত্রী

Social Share

তিমির চক্রবর্ত্তী : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২৩তম আইডিইবি জাতীয় সম্মেলন এবং ‘স্কিলস রেডিনেস ফর এচিভিং এসডিজি এন্ড এডপটিং আইআর ৪.০’ বিষয়ক আন্তর্জাতিক সম্মেলন উদ্বোধন করে বলেন দক্ষ জনশক্তি হিসাবে গড়ে তোলা সরকারের লক্ষ্য। ইনস্টিটিউট অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স, বাংলাদেশ (আইডিইবি) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় এই সম্মেলনের আয়োজন করেছে।

‘বিশ্ববিদ্যালয় থেকে দক্ষ জনশক্তি বের হলে দেশ আরো এগিয়ে যাবে। বঙ্গবন্ধু যে স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলতে চেয়েছিলেন ৪১ সালে এদেশের মানুষ সেই বাংলাদেশ পাবে।’

রোববার (২ জানুয়ারি) সকালে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশের (আইডিইবি) ২৩তম জাতীয় সম্মেলন উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

কার্যক্রমের শুরুতে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের কালোরাতে হত্যাকান্ডের শিকার জাতির পিতা এবং তার পরিবারের নিহত সদস্যবৃন্দ, শহীদ চার নেতা, ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা যুদ্ধে শহীদ এবং ১৯৫২ সালে ভাষা আন্দোলনের শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রকৌশল শিক্ষার গুরুত্ব উপলব্ধি করে আমরা ১২টি বিজ্ঞান এবং প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন করেছি। এসব বিশ্ববিদ্যালয় থেকে দক্ষ জনশক্তি বের হলে দেশ আরও এগিয়ে যাবে। ২০৪১ সালের যে বাংলাদেশের স্বপ্ন দেখছি, আশা করছি সেই বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠিত হবে। বঙ্গবন্ধু যে স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলতে চেয়েছিলেন ৪১ সালে এদেশের মানুষ সেই বাংলাদেশ পাবে।

ডিপ্লোমা প্রকৌশলীদের উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, পরিবেশ রক্ষা, জলাধার রক্ষা, গাছ লাগানোসহ দেশের উন্নয়নে আপনারা কাজ করবেন। বিশ্ব এগিয়ে যাচ্ছে। বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যেতে হবে। এ জন্য দক্ষ জনশক্তি গড়ে তোলার কর্মসূচি ঘোষণা করেছি। প্রতিটি উপজেলায় একটি করে টেকনিক্যাল ইনস্টিটিউট করছি। ইতোমধ্যে ১০০টি ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, একটি দেশকে গড়ে তুলতে হলে দক্ষমানব শক্তির সবচেয়ে বেশি প্রযয়োজন। বিশ্বের সঙ্গে প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে হলে আমাদের দক্ষ জনশক্তি গড়ে তুলতে হবে। শুধু দেশের জন্য নয়, যারা বিদেশে কাজ করবেন তাদেরও দক্ষ হয়ে যেতে হবে। তাহলে আমরা অর্থনৈতিকভাবে লাভবান হবো।
প্রধানমন্ত্রী ডিপ্লোমা প্রকৌশলীদের উদ্দেশ্যে বলেন, গণভবন জনগনের ভবন। আগে জানা থাকলে আপনাদের গণভবনে দাওয়াত দিতাম, যাই হোক আগামীতে আপনাদের গণভবনে দাওয়াত রইলো।

আইডিইবি সভাপতি এ কে এম এ হামিদের সভাপতিত্বে সম্মেলনে বিশেষ অতিথি ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি ও শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী। মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন আইডিইবি’র সাধারণ সম্পাদক মো. শামসুর রহমান। তিন দিনব্যাপী এ সম্মেলনে দেশি-বিদেশি প্রতিনিধিরা অংশ নিচ্ছেন।