খালেদা জিয়ার চিকিৎসার অযুহাতে বিএনপি আন্দোলনের হুমকি দিচ্ছে : কৃষিমন্ত্রী

কাজল আর্য, স্টাফ রিপোর্টার:

91
জিয়ার
Social Share

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী ডক্টর আব্দুর রাজ্জাক এমপি বলেছেন, দুর্নীতি মামলার দ-প্রাপ্ত খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে চিকিৎসার অযুহাতে বিএনপি আন্দোলনের হুমকি দিচ্ছে। তারা আবারও দেশে আগুন সন্ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করতে চায়। তাদের এ তৎপরতা রুখতে দেশের জনগনকে সজাগ থাকতে হবে।

রোববার দুপুরে টাঙ্গাইল শহীদ স্মৃতি পৌর উদ্যানে জাতীয় সমাজসেবা দিবসের শোভাযাত্রা শেষে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তরে তিনি এসব কথা বলেন। পরে আলোচনা সভায় মন্ত্রী প্রধান অতিথি হিসেবে অংশগ্রহণ করেন।

মন্ত্রী আরো বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার , যিনি এক সময় প্রধানমন্ত্রী ছিলেন, একটি বড় দলের প্রধান। তিনি দুর্নীতি করেছেন, দেশের আইন অনুযায়ী তার শাস্তি হয়েছে। তারা ২০০১ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় ছিলেন। ওই সময় তারা সন্ত্রাসকে প্রশ্রয় দিয়েছে- ধর্মীয় জঙ্গীদের লালন করেছে এবং দেশকে একটি অনিশ্চয়তার দিকে ঠেলে দিয়েছে। সে সময় তারা ব্যাপক দুর্নীতি করেছে। সেই দুর্নীতির কারণে সমাজের অনেক অংশে পঁচন ধরেছে। এ সময়ে দেশের জাতীয় রাজনীতিতে স্থিতিশীলতা দরকার, রাজনৈতিক শান্তি দরকার। অথচ বিএনপি দেশে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে অপতৎপরতা চালাচ্ছে। এ বিষয়ে দেশের জনগনকে সোচ্চার হতে হবে।

তিনি বলেন, আমি মনে করি বিএনপির নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করবে। দেশে একটু সুষ্ঠু সুন্দর নির্বাচন হবে। এছাড়া হুমকি দিয়ে আমাদের সংবিধানে বিধান থেকে সরাতে পারবেনা।

জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক শাহ আলমের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট জোয়াহেরুল ইসলাম এমপি, ছানোয়ার হোসেন এমপি, জেলা প্রশাসক ডক্টর আতাউল গনি, পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার, পৌরসভার মেয়র এসএম সিরাজুল হক আলমগীর, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহজাহান আনছারী প্রমুখ।

………………………………………………………………………………………………

তিনি বলেন, আমি মনে করি বিএনপির নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করবে। দেশে একটু সুষ্ঠু সুন্দর নির্বাচন হবে। এছাড়া হুমকি দিয়ে আমাদের সংবিধানে বিধান থেকে সরাতে পারবেনা।

জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক শাহ আলমের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট জোয়াহেরুল ইসলাম এমপি, ছানোয়ার হোসেন এমপি, জেলা প্রশাসক ডক্টর আতাউল গনি, পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার, পৌরসভার মেয়র এসএম সিরাজুল হক আলমগীর, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহজাহান আনছারী প্রমুখ।