ক্ষমতায় এলেই বাংলায় ‘আয়ুষ্মান ভারত’, প্রতিশ্রুতির ফোয়ারা শাহের মুখে

21
Social Share

২১-এর নির্বাচন জিতে ক্ষমতায় এসে প্রথমেই বাংলায় ‘আয়ুষ্মান ভারত’ (ayushman bharat) প্রকল্প চালু করবে BJP সরকার।ডুমুরজলার মেগা সভায় ভার্চুয়াল উপস্থিতিতেই বড় ঘোষণা অমিত শাহের। স্মৃতি ইরানির সুরেই তৃণমূল সুপ্রিমোকে ঝাঁঝালো আক্রমণ। শাহ নিশানা করেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কেও। বলেন, ‘ ভাইপোকে মুখ্যমন্ত্রী করা ছাড়া তৃণমূলের আর কোনও লক্ষ্য নেই।’

দিল্লি বিস্ফোরণের কারণে বঙ্গ সফর বাতিল হলেও অমিত শাহের উপস্থিতি থেকে বঞ্চিত হল না ডুমুরজলা। ভার্চুয়ালি BJP চাণক্য নতুন সদস্যদের দলে স্বাগত লাগিয়ে বলেন, ‘তৃণমূলকে বাংলা থেকে উপড়ে ফেলে দেবে মানুষ। TMC-র শেষের শুরু। ভোট আসতে আসতে একা হয়ে যাবেন দিদি। গত তিন মাসে তৃণমূল হাফ ফাঁকা। শুভেন্দু ভাইয়ের নেতৃত্বে বহু সাংসদ, বিধায়ক ইতিমধ্যেই বাম, তৃণমূল ছেড়ে BJP-তে এসেছেন। রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত ধরেও বহু বিধায়ক, তারকা, বিশিষ্ট মানুষ BJP-তে যোগ দিয়েছেন। TMC-তে আস্থা হারিয়েই এই দলবদল।
রাজ্যের শাসকদলকে নিশানা করলেও এদিন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর মন্তব্যের সুর অবশ্য বাঁধা ছিল প্রতিশ্রুতিতে। তিনি বলেন, ‘এই প্রকল্পের আওতায় বাংলার সমস্ত গরীব মানুষই পাঁচ লাখ টাকার স্বাস্থ্যবিমা পাবেন। চিকিৎসা করানো যাবে দেশের যে কোনও হাসপাতালে।‘ আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প নিয়ে প্রথম থেকেই বিরোধিতা করে আসছে মমতা সরকার। উল্লেখ্য, একুশের নির্বাচনকে নজরে রেখে আগেই মুখ্যমন্ত্রী রাজ্য সরকারের নিজস্ব স্বাস্থ্যবিমা প্রকল্পের আওতায় রাজ্যের সমস্ত মানুষকে আনার ঘোষণা করেছেন। ইতিমধ্যেই আবেদনকারী ৭৫ শতাংশেরও বেশি মানুষের হাতে স্বাস্থ্যসাথী কার্ড তুলে দেওয়া হয়েছে। তারই পালটা এদিন শাহের ঘোষণা। বহুদিন ধরেই কেন্দ্রের এই প্রকল্প নিয়ে BJP-তৃণমূলের আক্রমণ-প্রতি আক্রমণের পালা চলছে।

‘ভাঁওতাবাজি করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়’, চাঞ্চল্যকর অভিযোগ শাহের। তিনি বলেন, বাংলার কৃষকদের বঞ্চিত করেছেন দিদি। এতদিন কিষান নিধি (Kisan Nidhi) যোজনার টাকা পাচ্ছিলেন না বাংলার কৃষকরা। এখন তড়িঘড়ি একটা কাগজ পাঠিয়ে ভাঁওতা দিয়েছেন দিদি। কাগজ পাঠিয়ে বলেছেন হ্যাঁ টাকা পাঠিয়ে দিন কিন্তু কৃষকদের নামের লিস্ট, অ্যাকাউন্ট নাম্বার কিছুই পাঠাননি। কী করে সরাসরি কৃষকদের অ্যাকাউন্টে টাকা ঢুকবে? ফের টাকা চুরির ফিকির”

ডুমুরজলার সভায় ফের বিজেপি সেনাপতির নিশানায় তৃণমূল যুব সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। বলেন,ভাইপোকে মুখ্যমন্ত্রী করা ছাড়া তৃণমূলের কোনও লক্ষ্য নেই। বাংলার মানুষকে নিয়ে নয়, ভাইপোকে নিয়েই ভাবেন মমতা দিদি। সূত্র: এইসময়