ক্যাসিনো মামলায় গ্রেপ্তার এনু ও রূপন

ক্যাসিনো মামলায় পলাতক দুই আসামী গ্রেফতার করেছে সিআইডি। তারা হলেন গেণ্ডারিয়া আওয়ামী লীগের নেতা দুই ভাই এনামুল হক এনু ও রূপন ভূঁইয়া। তাদের গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ-সিআইডি।

আজ সোমবার সকালে ঢাকায় পৃথক অভিযানে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। অবৈধ ক্যাসিনো কারবারে ২১ কোটি ৮৯ লাখ ৪৩ হাজার টাকার সম্পদ অর্জনের অভিযোগে তাদের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা রয়েছে।

সিআইডির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. ফারুক হোসেন গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সিআইডি সদর দপ্তরে আজ দুপুরে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে বলে জানানো হয়েছে।

এ সময় দুই ভাইয়ের কাছে বিপুল পরিমাণ অর্থও উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

গ্রেপ্তারদের মধ্যে এনু ঢাকা ওয়ান্ডারার্স ক্লাবের শেয়ার হোল্ডার। তিনি গেণ্ডারিয়া থানা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি। তার ভাই রূপন ছিলেন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক।

এর আগে গত ২৪ সেপ্টেম্বর সকাল ১০টার দিকে প্রথমে র‌্যাব-৩-এর একটি দল সূত্রাপুর থানাধীন কাঠেরপুল লেনের ৩১ নম্বরের ছয়তলা বাড়িতে অভিযান চালায়। এটি এনু ও রূপনদের নিজেদের বাড়ি। ভবনটির তিনতলায় ও পাঁচতলার ফ্ল্যাটের ভল্টের ভেতর থেকে এক কোটি পাঁচ লাখ টাকা, আট কেজি স্বর্ণালংকার ও পাঁচটি আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করে র‌্যাব। পরে র‌্যাব খবর পায়, তাঁদের আরো টাকা ও অস্ত্র আছে নারিন্দার দুটি বাড়িতে। এরপর ৮২/১ নারিন্দা লালমোহন স্ট্রিটের দোতলায় এনুর কর্মচারী আবুল কালাম ওরফে কালার নিজস্ব ফ্ল্যাট থেকে দুই কোটি টাকা ও একটি পিস্তল উদ্ধার করা হয়। এরপর বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে শরত্গুপ্ত রোডের ২১/১/এ নম্বর দোতলা ভবনের দ্বিতীয় তলায় অভিযান চালিয়ে একটি লকার থেকে দুই কোটি টাকা উদ্ধার করা হয়। এ বাড়ির মালিক হারুনুর রশীদ। তিনি এনুর বন্ধু বলে জানিয়েছেন হারুনের স্ত্রী নাদিয়া শারমিন লিপি।