কৃষিবিদ সমবায় সোসাইটি লিমিটেডের নয়া কমিটি ঘোষণা

 

কৃষিবিদ সমবায় সোসাইটি লিমিটেডের ১২ সদস্যের নতুন কমিটির সভাপতি ও সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন কৃষিবিদ ড. নূরুল ইসলাম ভূঁইয়া এবং কৃষিবিদ মোহাম্মদ আবদুস সাত্তার। বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় নির্বাচিত এই কমিটির অন্যান্য কর্মকর্তা ও সদস্যদেন মধ্যে রয়েছেন; সহ-সভাপতি কৃষিবিদ মো. আব্দুল বাতেন, যুগ্ম সম্পাদক কৃষিবিদ এ এইচ ইকবাল আহমেদ, কোষাধাক্ষ্য কৃষিবিদ এসএম ইমদাদুল হক, সদস্য মো. নিজামুল হক, কৃষিবিদ প্রফেসর ড. কামাল উদ্দিন আহম্মদ, কৃষিবিদ ড. বিমল চন্দ্র দে, কৃষিবিদ সারওয়ারী মেহেদী মোবারক, কৃষিবিদ ড. মো. ফরিদ উদ্দীন, কৃষিবিদ ড.মো. গাজী গোলাম মর্তুজা ও কৃষিবিদ মাসুমা ইউনুস।

আজ রাজধানীর খামারবাড়ির কৃষি তথ্য সার্ভিসের কনফারেন্স রুমে কৃষিবিদ সমবায় সোসাইটি লিমিেিটডের ৬ষ্ঠ বার্ষিক সাধারণ সভা-২০১৯ এ ২০১৯-২০২১ মেয়াদের জন্য গঠিত এ কমিটির নাম ঘোষণা করা হয়। সোসাইটির সভাপতি কৃষিবিদ ড. এম মো. মতলুবর রহমানের সভাপতিত্বে ষষ্ঠ বার্ষিক সাধারণ সভায় সম্মানিত অতিথির বক্তব্য দেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের সাবেক মহাপরিচালক ও কৃষি মন্ত্রণালয়ের বিশেষজ্ঞ পুলের সভাপতি কৃষিবিদ মো. হামিদুর রহমান। সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন কৃষিবিদ সমবায় সোসাইটির সহ-সভাপতি কৃষিবিদ ফজলুর করিম, কৃষি তথ্য সার্ভিসের প্রধান তথ্য অফিসার কৃষিবিদ ড. মো. খালেদ কামাল, প্রমুখ। এ সময় সাধারণ সম্পাদকের রিপোর্ট উপস্থাপন করেন কৃষিবিদ মো. আবদুস সাত্তার ও কোষাধ্যাক্ষের রিপোর্ট দেন কৃষিবিদ মো. নিজামুল হক।

সভায় বিশেষ কৃতিত্বের জন্য তিনজন কৃষিবিদকে সম্মাননা দেওয়া হয় এদের মধ্যে রয়েছেন সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি প্রয়াত কৃষিবিদ আ.কা.মু. গিয়াস উদ্দীন মিল্কী ও কৃষিবিদ মানজুমুল হক এবং কৃষিবিদ ড. এম মতলুবর রহমান। সম্মানিত অতিথির বক্তব্যে সাবেক মহাপরিচালক কৃষিবিদ মো. হামিদুর রহমান বলেন ঠিক জায়গায় ঠিক লোককে নিয়োগ দিলে দেশ ও জাতির কোন ক্ষতি হয়না। কৃষিক্ষেত্রে আগামী চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় কৃষিবিদদের সমবায়কে আরো শক্তিশালী করতে হবে। সভাপতি তার বক্তব্যে বলেন কৃষিবিদ হিসেবে আমরা অনেক কিছু করেছি আবার সঠিক উদ্যোগের অভাবে অনেক কিছু করতে পারিনি এ সীমাবদ্ধতাকে কাটিয়ে দেশের কৃষিকে আরো এগিয়ে নিতে হবে। এর সঙ্গে কৃষিবিদ ও তার পরিবার পরিজনদের আর্থিক শ্রী বৃদ্ধির জন্যও সজাগ থাকতে হবে। কারণ কৃষিবিদরা আর্থিকভাবে সংকটগ্রস্থ থাকলে প্রকারান্তে কৃষি ক্ষতিগ্রস্থ হবে। তাই কৃষিবিদদের আর্থিক সচ্ছলতার মাধ্যমে দেশের কৃষিকে আরো উন্নত করতে হবে।