কুমিল্লা-৭ আসনের উপ-নির্বাচনে চারজন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা

54
Social Share

কুমিল্লা-৭ (চান্দিনা) আসনের উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত নৌকা মার্কার প্রার্থী অধ্যাপক ডা. প্রাণ গোপাল দত্তসহ চারজন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। বাকী তিন প্রার্থী হলেন কুমিল্লা উত্তর জেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক লুৎফুর রেজা খোকন, স্বতস্ত্র প্রার্থী মাওলানা সালেহ সিদ্দিকী ও ন্যাপের প্রার্থী মো. মনিরুল ইসলাম।

সোমবার সদর আসনের এমপি আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহারকে সাথে নিয়ে কুমিল্লা আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মো. দুলাল তালুকদারের নিকট মনোনয়ন পত্র জমা দেন নৌকা প্রতীকের মনোনীত প্রার্থী অধ্যাপক প্রাণ গোপাল দত্ত। এসময় সাবেক এমপি প্রয়াত আলী আশরাফের ছেলে মুনতাকিম আশরাফ টিটু, চান্দিনা উপজেলা চেয়ারম্যান তপন বকসী, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাড.আমিনুল ইসলাম টুটুল ও দেবিদ্বার উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদসহ নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

মনোনয়ন পত্র জমা দেয়ার পর এক প্রতিক্রিয়ায় অধ্যাপক প্রাণ গোপাল দত্ত বলেন, ‌‘নির্বাচিত হলে প্রয়াত এমপি অধ্যাপক আলী আশরাফের অসমাপ্ত কাজগুলো সমাপ্ত করবো। পুরো চান্দিনার সবাই ঐক্যবদ্ধ। নৌকার বিজয় মানে চান্দিনাবাসীর বিজয়। এ লক্ষ্য সবাই কাজ করছে।’

এদিকে, সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন  কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক এয়ার আহমেদ সেলিম। তিনি বলেন, ‘একটি অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন আমরা কামনা করি। এটা জাতীয় নির্বাচন নয় যে প্রার্থী হারলে ক্ষমতা চলে যাবে।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক এয়ার আহমেদ সেলিম, যুগ্ম আহবায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা ওবায়েদুল কবির মোহন, কুমিল্লা মহানগর জাতীয় পার্টির সদস্য সচিব কাজি নাজমুন ছোট্টু, যুগ্ম আহবায়ক মাহাবুব আলম সেলিম, দক্ষিণ জেলা জাতীয় পার্টির যুগ্ম আহবায়ক এম এস গোলাম বায়েজিদসহ আরও অনেকে।

নির্বাচন কর্মকর্তা মো. দুলাল তালুকদার জানান, ‘সোমবার ছিলো মনোনয়ন জমাদানের শেষ দিন। এদিন আওয়ামীলীগ, জাতীয় পার্টি, ন্যাপ ও  স্বতন্ত্র মিলিয়ে ৪ জন প্রার্থী মনোনয়ন জমা দিয়েছেন।’

উল্লেখ্য, কুমিল্লা-৭ (চান্দিনা) আসনের আওয়ামী লীগের দলীয় এমপি অধ্যাপক আলী আশরাফ গত ৩০ জুলাই মৃত্যুবরণ করলে এই আসন শূন্য ঘোষণা করা হয়। তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র দাখিল ১৩ সেপ্টেম্বর, বাছাই ১৪ সেপ্টেম্বর, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ১৯ সেপ্টেম্বর। এরপর প্রতীক বরাদ্দ ২০ সেপ্টেম্বর ও ৭ অক্টোবর এই আসনে ভোট হবে ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম)।