কালিয়ায় মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য ১১টি বীরনিবাস তৈরি হচ্ছে

284
কালিয়ায়
Social Share

চলতি ২০২১-২০২২ অর্থবছরে সরকারি অর্থায়নে নড়াইলের কালিয়ায় উপজেলায় ১কোটি ৪০লাখ টাকা ব্যয়ে ১১ বীর মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের পরিবারের জন্য ১১টি বীরনিবাস (আবাসন) তৈরি করা হচ্ছে।মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে অসচ্ছল ও ঘর পাওয়ার জন্য বিবেচিত বীর মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য বীর নিবাস নামে বাড়ি নির্মাণের কাজ চলছে।প্রতিটি ঘর নির্মাণে ব্যয় ধরা হয়েছে ১২লাখ ৭৩হাজার ৪৩৭টাকা।
কালিয়া উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস সূত্রে জানা যায়, কালিয়া পৌরসভাধীন সীতারামপুর এলাকার বীর মুক্তিযোদ্ধা মো: মকবুল শেখ, বাঐসোনা ইউনিয়নের পার বাঐসোনা  গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা মো: খলিলুর রহমান,যোগানিয়া গ্রামের মো: হিরু শেখ, বাঐসোনা  গ্রামের শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস শুকুরের স্ত্রী আবেজান নেসা, জয়নগর ইউনিয়নের পানিপাড়া গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা মো: খলিলুর রহমান,সালামাবাদ ইউনিয়নের হাড়িডাঙ্গা গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা দেলোয়ার থান্দার,বাকা গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর গফফার শেখ,কলাবাড়ীয়া ইউনিয়নের কলাবাড়ীয়া গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা তোতা মিয়া শেখ, চাঁচুড়ী ইউনিয়নের কলিমন গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা সরোয়ার হোসেন শেখ,পেড়লী ইউনিয়নের খড়লিয়া গ্রামের বীর মক্তিযোদ্ধা জামাল মোল্যা ও একই গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা এফএম মোফাক্কার হোসাইন’র জন্য মোট ১১টি বীরনিবাস তৈরি করা হচ্ছে।
কালিয়া উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো: ই¯্রাফিল হোসেন জানান, বীর মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য নির্মিত একতলা বিশিষ্ট ঘরে থাকছে দুটি বেড রুম,১টি রান্না ঘর, ১টি ড্রয়িং রুম,১টি ডাইনিং রুম,বারান্দা,দুটি ওয়াশ রুম ও ১টি টিউবওয়েল।

…………………………………………………………………………………………………………….

চলতি ২০২১-২০২২ অর্থবছরে সরকারি অর্থায়নে নড়াইলের কালিয়া উপজেলায় ১কোটি ৪০লাখ টাকা ব্যয়ে ১১ বীর মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের পরিবারের জন্য ১১টি বীরনিবাস (আবাসন) তৈরি করা হচ্ছে।মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে অসচ্ছল ও ঘর পাওয়ার জন্য বিবেচিত বীর মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য বীর নিবাস নামে বাড়ি নির্মাণের কাজ চলছে।প্রতিটি ঘর নির্মাণে ব্যয় ধরা হয়েছে ১২লাখ ৭৩হাজার ৪৩৭টাকা।
কালিয়া উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস সূত্রে জানা যায়, কালিয়া পৌরসভাধীন সীতারামপুর এলাকার বীর মুক্তিযোদ্ধা মো: মকবুল শেখ, বাঐসোনা ইউনিয়নের পার বাঐসোনা  গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা মো: খলিলুর রহমান,যোগানিয়া গ্রামের মো: হিরু শেখ, বাঐসোনা  গ্রামের শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস শুকুরের স্ত্রী আবেজান নেসা, জয়নগর ইউনিয়নের পানিপাড়া গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা মো: খলিলুর রহমান,সালামাবাদ ইউনিয়নের হাড়িডাঙ্গা গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা দেলোয়ার থান্দার,বাকা গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর গফফার শেখ,কলাবাড়ীয়া ইউনিয়নের কলাবাড়ীয়া গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা তোতা মিয়া শেখ, চাঁচুড়ী ইউনিয়নের কলিমন গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা সরোয়ার হোসেন শেখ,পেড়লী ইউনিয়নের খড়লিয়া গ্রামের বীর মক্তিযোদ্ধা জামাল মোল্যা ও একই গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা এফএম মোফাক্কার হোসাইন’র জন্য মোট ১১টি বীরনিবাস তৈরি করা হচ্ছে।
কালিয়া উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো: ই¯্রাফিল হোসেন জানান, বীর মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য নির্মিত একতলা বিশিষ্ট ঘরে থাকছে দুটি বেড রুম,১টি রান্না ঘর, ১টি ড্রয়িং রুম,১টি ডাইনিং রুম,বারান্দা,দুটি ওয়াশ রুম ও ১টি টিউবওয়েল।