কাতার বিশ্বকাপেই ৩২ দলের বদলে ৪৮ দল, ইঙ্গিত ফিফার

১৯৯৮ সাল থেকে বিশ্বকাপে অংশ নিচ্ছে ৩২ দল। এই সংখ্যা ২০২৬ সালের আসরে ৪৮-এ উন্নীত করার পরিকল্পনা থাকলেও ২০২২ সালের আসরেই তা বাস্তবায়ন করতে চাইছে ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি।

রাশিয়া বিশ্বকাপ শেষ হওয়ার পর থেকেই শোনা যাচ্ছিল কাতার বিশ্বকাপ হবে ৪৮ দলের। এমন গুঞ্জন নিয়ে আয়োজক কমিটি এত দিন সরাসরি কিছু না বললেও গত বৃহস্পতিবার ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো জানালেন, কাতারে অনুষ্ঠেয় ২০২২ বিশ্বকাপেই ৪৮ দলের অংশগ্রহণ দেখা যেতে পারে।

মরক্কোর শহর মারাকেচে ফিফার এক সভায় ইনফান্তিনো বলেন, ‘কাতারিরা এই (৪৮ দলের বিশ্বকাপ) আইডিয়া নিয়ে কাজ করছে। তারা এটা নিয়ে ইতিবাচক। ফেডারেশনের প্রায় সবাই এটাকে সাপোর্ট করছেন। তবে আপনাকে এটা দেখতে হবে যে সাংগঠনিক পর্যায়ে এর সম্ভাব্যতা কতটা।’

তিনি আরো বলেন, ‘অবশ্যই, শুধু কাতারে ৪৮ দলের বিশ্বকাপ আয়োজন সম্ভব নয়। সেক্ষেত্রে পার্শ্ববর্তী কোনো দেশের সহায়তা নিতে হতে পারে।’

কিন্তু মধ্যপ্রাচ্যের অধিকাংশ দেশের সঙ্গে কাতারের রাজনৈতিক সম্পর্ক এখন তলানিতে।  ২০১৭ সালের জুন থেকে সাবেক বন্ধুপ্রতিম রাষ্ট্র সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইনসহ ৬ আরব রাষ্ট্র কাতারের ওপর কূটনৈতিক ও অর্থনৈতিক অবরোধ আরোপ করে রেখেছে। এমন পরিস্থিতে পার্শ্ববর্তী দেশের সহায়তা কিভাবে পাবে কাতার- এ প্রশ্নের জবাবে ইনফান্তিনো বলেন, ‘আমরা ফুটবল নিয়ে আছি, রাজনীতি নয়। আমরা দেখব কি করা যায়।’

ফুটবল বিশ্বকাপের পাশাপাশি ক্লাব বিশ্বকাপকেও আরো বেশি অংশগ্রহণমূলক করার আগ্রহের কথাও জানান ফিফা প্রধান। তিনি বলেন, ‘আমরা এটাকেও (ক্লাব বিশ্বকাপ) সত্যিকার অর্থে বিশ্বকাপ বানাতে চাই, যেখানে সব মহাদেশ থেকে ২৪টি দল অংশ নেবে। সেরা ক্লাবের প্রায় সবই ইউরোপে অবস্থিত। কিন্তু আমাদের সারা পৃথিবী থেকেই দল প্রয়োজন।’