কলকাতায় বাম-কংগ্রেস নজিরবিহীন সমাবেশ, নজর কাড়লেন আব্বাস সিদ্দিকী

27
Social Share

কলকাতা আজ চাক্ষুষ করল নজিরবিহীন এক সমাবেশ। বিধানসভা নির্বাচনের আগে বাম-কংগ্রেস জোট এবং তাদের নতুন সঙ্গী ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্ট (আইএসএফ) আজ রবিবার কলকাতা ক্রিকেট প্যারেড গ্রাউন্ডে আয়োজন করেছিল তাদের নির্বাচন সমাবেশ।

যদিও একের পর এক নির্বাচনে তৃণমূলের কাছে হারতে হারতে বাম কংগ্রেসের জোট তলানিতে এসে ঠেকেছে। আজকের ব্রিগেডের সমাবেশ থেকে বাম কংগ্রেস নেতারা হুংকার দিলেন, বিকল্প চায়।

পশ্চিমবঙ্গে এবারের নির্বাচন বলতে গেলে তৃণমূল আর বিজেপির লড়াই। আইএসএফ ঘোষণা দিলো তারাও এ লড়াইয়ে শামিল।

আজ সমাবেশে ছিলেন বামনেতা বিমান বোস, মোহাম্মদ সেলিম সূর্যকান্ত মিশ্র কংগ্রেসের রাজ্য সভাপতি অধীর চৌধুরী কিন্তু সবাইকে ছাপিয়ে গেলেন সদ্য রাজনীতিতে পা রাখা আইএসএফ নেতা আব্বাস সিদ্দিকি।

একুশে ভোটের আগে বাম-কংগ্রেসের ব্রিগেড সমাবেশের অন্যতম চমক ছিল ধর্মনিরপেক্ষ জোটে আইএসএফের যোগদান। চমক দেখাও গেল রবিবার দুপুরে। বসন্তের গনগনে রোদের ব্রিগেডের উত্তাপ বাড়িয়ে দিল আব্বাসের উপস্থিতি। এদিন মঞ্চে আইএসএফ প্রধান আব্বাস উঠতে না উঠতেই জনতার উচ্ছ্বাস, অভিবাদন। তাঁকে সমাদরে চেয়ার পর্যন্ত এগিয়ে দিলেন সিপিএম নেতা মহম্মদ সেলিম। মঞ্চে ওঠামাত্রই চারধারে স্লোগান উঠল ভাইজান, ভাইজান। নিজের বক্তব্যে আব্বাস সরাসরি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং বিজেপির বিরুদ্ধে আক্রমণ শানালেন।

‘নারীদের স্বাধীনতা হরণ করে নিয়েছে মমতা। আমরা স্বাধীনতা ফেরানোর যুদ্ধে নেমেছি। রক্ত দিয়ে মাতৃভূমিকে রক্ষা করব। মমতাকে জিরো করে দেব’। পাশাপাশি বিজেপিকে আক্রমণ করতে গিয়ে অবশ্য তিনি বামদের স্লোগানই খানিকটা ধার করলেন। স্লোগান তুললেন, ‘বিজেপির কালো হাত ভেঙে দেব’।

আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনকে স্বাধীনতা যুদ্ধের সঙ্গে তুলনা করলেন আইএসএফ প্রধান আব্বাস সিদ্দিকি। জোট নিয়ে প্রথমদিকে যতই জট থাকুক, পরবর্তীতে তা মসৃণভাবেই এগিয়েছে। সে কারণেই ব্রিগেডের মঞ্চ থেকে আব্বাস জোটের মূল নিয়ন্ত্রকদের ধন্যবাদ দিলেন।