করোনা হাসপাতাল হচ্ছে তেজগাঁওয়ে

Social Share

করোনাভাইরাস সংক্রমিত রোগীদের চিকিৎসার জন্য আকিজ গ্রুপ ও গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের উদ্যোগে রাজধানীর তেজগাঁও শিল্প এলাকায় অস্থায়ী হাসপাতালটি শেষপর্যন্ত নির্মিত হচ্ছে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। সূত্র জানায়, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন হাসপাতাল ওখানেই হবে। দেশের ক্লান্তিকালে হাসপাতালটি প্রয়োজন। এবিষয়ে তিনি প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিয়েছেন।’

অন্য একটি সূত্র জানায়, গতকাল শনিবার (২৮ মার্চ) সন্ধ্যায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেন আকিজ গ্রুপের কর্মকর্তারা। এসময় মন্ত্রীকে হাসপাতালের সব বিষয় তুলে ধরেন তাঁরা। এ সময় মন্ত্রী তাঁদেরকে কাজ শুরু নির্দেশ দেন।

জানা গেছে, চীনের উহানের আদলে করোনাভাইরাস আক্রান্তদের জন্য ২৫০ শয্যার হাসপাতল নির্মাণ করছিল গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র। গুলশান-তেজগাঁও লিংক রোডে শান্তা টাওয়ারের পেছনে ১৯৪ নম্বর প্লটে আকিজ গ্রুপের আর্থিক সহযোগিতা এবং জমির ওপর তৈরি করা হচ্ছে হাসপাতালটি। কিন্তু গতকাল দুপুরের দিকে এলাকার দুই-আড়াই শ লোক গিয়ে নির্মাণকাজে বাধা দেয়। এ ছাড়া ওই এলাকায় বিক্ষোভ ও অবস্থান নেয় তারা। এ সময় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ২৪ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর শফিউল্লাহ উপস্থিত ছিলেন। তবে এলাকাবাসীকে শান্ত করার জন্য তিনি ঘটনাস্থলে যান বলে দাবি করেন।

স্থানীয় লোকজন জানায়, করোনা রোগীদের এনে চিকিৎসা করা হবে-এই সংবাদ এলাকাবাসী জানার পর একধরনের আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে তেজগাঁও এলাকায়। ফলে স্থানীয় লোকজন সেখানে হাসপাতাল নির্মাণের বিরোধিতা করে আসছিল। এ সময় স্থানীয় কাউন্সিলর পেছন থেকে লোকজনকে ‘উসকানি’ দেন। তবে গণমাধ্যমে প্রকাশ্যে কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে কথা বলতে চায়নি কেউ।

জানা গেছে, সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি উদ্যোগে করোনা রোগীদের চিকিৎসার জন্য একটি হাসপাতাল নির্মাণের উদ্যোগ নেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। জমি ও অর্থ দিয়ে সহযোহিতা করছে আকিজ গ্রুপ। কাউন্সিলর ও স্থানীয় লোকজন বাধা দেওয়ার পর গতকালই হাসপাতাল নির্মাণের কাজ বন্ধ করে দেওয়া হয়।