করোনা মোকাবেলায় ফ্রান্সে কারফিউ জারি ॥ ইউরোপে কঠোর বিধিনিষেধ

Social Share

ইউরোপের মধ্যে সর্বশেষ ফ্রান্স বুধবার করোনা মোকাবেলায় কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণের দলে শামিল হলো।
দেশটি রাজধানী প্যারিসসহ আরো ৮টি শহরে শনিবার থেকে কারফিউ বলবৎ করতে যাচ্ছে।
ফরাসী প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রো টেলিভিশনে এক ঘোষণায় বলেন, আমাদের পদক্ষেপ নিতে হবে। ভাইরাসটির বিস্তারে বাধা দিতে হবে।
তিনি আগামী ছয় সপ্তাহ স্থানীয় সময় রাত ৯টা থেকে ভোর ৬ টা পর্যন্ত শাটডাউন বলবৎ রাখার ঘোষণা দেন।
বিশে^ করোনায় এ পর্যন্ত ১০ লাখেরও বেশি লোক মারা গেছে এবং প্রায় ৪ কোটি লোক আক্রান্ত হয়েছে।
এদিকে ইউরোপে নতুন করে করোনা তীব্র রূপ ধারণ করেছে। ফলে বিভিন্ন দেশে কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে।
জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মার্কেল সমাবেশ এবং মাস্ক পরার বিষয়ে কঠোর পদক্ষেপ ঘোষণা করেছেন।
দেশটিতে নতুন করে সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। গত ২৪ ঘন্টায় ৫ হাজারেরও বেশি লোক করোনায় আক্রান্ত হয়েছে।
স্পেনে সংক্রমণ বাড়ার কারণে বার ও রেস্টুরেন্ট আগামী ১৫ দিন বন্ধ থাকবে। দেশটিতে প্রায় ৯ লাখ লোক আক্রান্ত হয়েছে এবং মারা গেছে ৩৩ হাজারেরও বেশি লোক।
আয়ারল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী মাইকেল মার্টিন ব্রিটিশ প্রদেশ নর্দান আয়ারল্যান্ডের সাথে সীমান্ত এবং অদরকারি খুচরা দোকান এবং ব্যায়ামাগার, সুইমিং পুল ও অবকাশ কেন্দ্রসমূহ বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে।
ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন করোনা রোধে আরো কঠোর পদক্ষেপ নেয়ার বিষয়ে চাপের মুখে রয়েছেন।
ইতালিতে বুধবার নতুন করে আরো ৭ হাজার ৩৩২ জন আক্রান্ত হয়েছে। দেশটির সরকার ইতোমধ্যে নতুন ও কঠোর পদক্ষেপ নিয়েছে।
এদিকে ইউরোপের বাইরে আমেরিকায় একদিনে করোনায় মারা গেছে ৭৯৪ জন। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ লাখ ১৬ হাজার ৫৯৭ জনে।
এছাড়া দেশটিতে গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত হয়েছে আরো ৫২ হাজার ১৬০ জন। জন্স হপকিন্স ইউনিভার্সিটি এ তথ্য জানিয়ছে।