করোনা মোকাবিলায় পশ্চিমবঙ্গকে ১০,১০৬ কোটি টাকা দিয়েছে কেন্দ্র: নির্মলা সীতারমণ

Social Share

নয়াদিল্লি: রবিবার বিজেপির ভার্চুয়াল সভায় কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ জানালেন, করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় এখনও পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গ সরকারকে ১০,১০৬ কোটি টাকা দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। তাঁর অভিযোগ, বিপুল পরিমাণ কেন্দ্রীয় সাহায্যের পরেও পশ্চিমবঙ্গ সরকার করোনা প্রতিরোধে কোনও ব্যবস্থাই নেয়নি।

নির্মলা সীতারমণ জানান, করোনার ওষুধ কিনতে ও পরিকাঠামো তৈরিতে বাংলাকে দেওয়া হয়েছিল ১০,১০৬ কোটি টাকা। কিন্তু তার পরও পশ্চিমবঙ্গে হাসপাতাল ও কোয়ারেন্টাইন সেন্টার তৈরি হয়নি। রাজ্যে ৪২টি সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতাল রয়েছে বলে দাবি করতেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু করোনা মোকাবিলায় মাত্র ২টির হাসপাতালকে কাজে লাগানো হয়েছে।

নির্মলা সীতারমণ বলেন, পশ্চিমবঙ্গের করোনা পরিস্থিতি এতটাই গুরুতর যে পাশের রাজ্যগুলি বাংলার সঙ্গে তাদের সীমানা সিল করে দিয়েছে। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী বলেন, করোনা মোকাবিলায় সম্পূর্ণ ব্যর্থ পশ্চিমবঙ্গ সরকার। শুধু তাই নয়, রাজ্যকে সাহায্য করতে যখন কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিদল পাঠানো হয়েছে তখন তাঁদের সঙ্গেও অসহযোগিতা করেছে রাজ্য সরকার।

নির্মলা সীতারমণ দাবি করেন, করোনা পরীক্ষাতেও কারচুপি করেছে রাজ্য। প্রথমে করোনা পরীক্ষাই হচ্ছিল না। পরে পরীক্ষার সংখ্যা বাড়লেও তথ্যে প্রচুর গরমিল দেখা গিয়েছে। অর্থমন্ত্রী বলেন, করোনাযোদ্ধাদের জন্য ৫০ লাখ টাকার বিমা করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। কিন্তু রাজ্যের চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের অভিযোগ, ওষুধ নেই, পিপিই নেই।

এদিনের ভার্চুয়াল সভায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমালোচনা করে নির্মলা সীতারমণ বলেন, পশ্চিমবঙ্গে পরিবর্তনের পরিবর্তন হবে। বিজেপি ক্ষমতায় এসে নতুন পশ্চিমবঙ্গ গড়বে।