করোনায় স্থগিত হয়ে গেল এ বছরের টি-২০ বিশ্বকাপ

Social Share

করোনার কারণে শেষ পর্যন্ত স্থগিত হয়ে গেল আসন্ন টি-২০ বিশ্বকাপ। প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসের কারনে এ বছরের ১৮ অক্টোবর থেকে ১৫ নভেম্বর অস্ট্রেলিয়ায় নির্ধারিত টি-২০ বিশ্বকাপ স্থগিত করে দিলো ক্রিকেটের প্রধান সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। গতরাতে এক বিবৃতিতে এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছে আইসিসি।
নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এ বছরের টি-২০ বিশ্বকাপ আগামী বছর অক্টোবর-নভেম্বরে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতেই অনুষ্ঠিত হবে। । ফাইনাল হবে ১৪ নভেম্বর।
এরপর ২০২২ সালে হবে আরও একটি টি-২০ বিশ্বকাপ হবে ভারতে। যেটির ফাইনাল হবে ১৩ নভেম্বর।
আর ২০২৩ ভারতে নির্ধারিত থাকা ওয়ানডে বিশ্বকাপ ফেব্রুয়ারি-মার্চ থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে অক্টোবর নভেম্বরে। ফাইনাল হবে ২৬ নভেম্বর।
আইসিসি সভায়, চলতি বছরের টি-২০ বিশ্বকাপটি স্থানান্তর করা হয়েছে ২০২১ সালে। তাই ২০২১ সাল থেকে টানা তিন বছর তিনটি বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হবে। ২০২১ থেকে ২০২৩ সাল পর্যন্ত তিন বিশ্বকাপই হবে অক্টোবর-নভেম্বরে।
চলতি বছরের টি-২০ বিশ্বকাপ অস্ট্রেলিয়ায়, ২০২১ সালের টি-২০ বিশ্বকাপ হবে ২০২২ সালে ভারতে। এরপর ২০২৩ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপও ভারতে অনুষ্ঠিত হবে।
২০২১ সালের ফেব্রুয়ারিতে নিউজিল্যান্ডে হবে নারী বিশ্বকাপের আসর।
এক বিবৃতিতে আইসিসির প্রধান নির্বাহী মানু শানে বলেন, ‘এ বছরের বিশ্বকাপ স্থগিতের মত জটিল এবং কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছি আমরা। আমাদের প্রধান লক্ষ্য হচ্ছে, ক্রিকেটের সঙ্গে যুক্ত সকলের সুরক্ষা নিশ্চিত করা। আমাদের সামনে খোলা থাকা প্রত্যেকটি উপায় বিবেচনায় নিয়েছি। এরপরই আইসিসি টি-২০ বিশ্বকাপ স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। বিশ্বজুড়ে আমাদের সকল ক্রিকেটপ্রেমিদের দুর্দান্ত এবং সফল দু’টি টি-২০ বিশ্বকাপ উপহার দেওয়ার জন্যই আমরা এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’
বিশ্বকাপ পিছিয়ে যাওয়ায়, করোনার কারণে স্থগিত হয়ে যাওয়া দ্বিপাক্ষিক সিরিজগুলো, এই সময় আয়োজন করা যাবে বলে জানান শানে, ‘আমাদের সদস্য দেশগুলো এই সময়ের মধ্যে যতগুলো দ্বিপাক্ষিক সিরিজ মিস করেছে, সেগুলো খেলে পুষিয়ে নিতে পারবে তারা। করোনার কারণে আমরা অনেক ম্যাচ খেলা থেকে বিরত থাকতে হয়েছে। আমাদের সামনের খেলাগুলোর সূচি নতুনভাবে সাজাতে এই সময়টা আমাদের সহায়তা করবে।’