করোনায় মৃতের সংখ্যা আড়াই হাজার ছাড়ালো

Social Share

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ৫১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো দুই হাজার ৫৪৭ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছেন তিন হাজার ৩৪ জন। এ নিয়ে দেশে মোট শনাক্ত হলেন এক লাখ ৯৯ হাজার ৩৫৭ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ৭৬২ জন। এখন পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন এক লাখ আট হাজার ৭২৫ জন।

শুক্রবার (১৭ জুলাই) দুপুর আড়াইটায় কোভিড-১৯ সম্পর্কিত নিয়মিত স্বাস্থ্য বুলেটিনে এসব তথ্য জানান স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা।

গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ২২ দশমিক ৫৪ শতাংশ, এখন পর্যন্ত শনাক্তের হার ১৯ দশমিক ৮০ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার এক দশমিক ২৮ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৫৪ দশমিক ৫৪ শতাংশ।

মারা যাওয়া ৫১ জনের মধ্যে পুরুষ ৪০ জন, আর নারী ১১ জন। এখন পর্যন্ত মোট পুরুষ মারা গেছেন দুই হাজার ১১ জন; যা ৭৮ দশমিক ৯৬ শতাংশ এবং নারী ৫৩৬ জন; যা ২১ দশমিক শূন্য চার শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে মারা গেছেন ৪২ জন, আর বাড়িতে মারা গেছেন ৯ জন।

নাসিমা সুলতানা জানান, ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুবরণকারীদের বয়স বিভাজনে ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে একজন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে তিন জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে সাত জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ১৫ জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে ১২ জন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে ১১ জন এবং ৮১ থেকে ৯০ বছরের মধ্যে দুই জন রয়েছেন।

এ পর্যন্ত যারা মৃত্যুবরণ করেছেন তাদের মধ্যে শূন্য থেকে ১০ বছরের মধ্যে ১৭ জন, ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে ২৯ জন, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে ৭৭ জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে ১৭৯ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ৩৬৬ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ৭৫৭ এবং ষাটোর্ধ্ব এক হাজার ১২২ জন রয়েছেন।

২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়াদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১৩ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ১৬ জন, খুলনা ও বরিশাল বিভাগে ছয় জন করে, রাজশাহী ও সিলেটে তিন জন করে এবং রংপুর বিভাগে চার জন রয়েছেন।

এ পর্যন্ত মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে রয়েছেন এক হাজার ২৫৫ জন, যা ৪৯ দশমিক ২৮ শতাংশ; চট্টগ্রাম বিভাগে ৬৫৫ জন, যা ২৫ দশমিক ৭২ শতাংশ; রাজশাহী বিভাগে ১৩১ জন, যা ৫ দশমিক ১৪ শতাংশ; খুলনা বিভাগে ১৫৫ জন, যা পাঁচ দশমিক ৮৯ শতাংশ; বরিশাল বিভাগে ৯৭ জন, যা তিন দশমিক ৮১ শতাংশ; সিলেট বিভাগে ১১৬ জন, যা চার দশমিক ৫৫ শতাংশ; রংপুর বিভাগে ৮৭ জন, যা তিন দশমিক ৪২ শতাংশ এবং ময়মনসিংহ বিভাগে ৫৬ জন, যা দুই দশমিক ২০ শতাংশ।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) জানান, ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে যুক্ত হয়েছেন ৮১২ জন, আইসোলেশন থেকে ছাড়া পেয়েছেন ৫৯৩ জন। এ পর্যন্ত আইসোলেশনে গেছেন ৪০ হাজার ৭৫৯ জন, মুক্ত হয়েছেন ২২ হাজার ৫০৯ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১৮ হাজার ২৫০ জন।

তিনি আরও জানান, ২৪ ঘণ্টায় কোয়ারেন্টিনে যুক্ত হয়েছেন দুই হাজার ২৬১ জন, এ পর্যন্ত কোয়ারেন্টিনে গেছেন চার লাখ পাঁচ হাজার ৫৩০ জন। বর্তমানে কোয়ারেন্টিনে আছেন ৬০ হাজার ২২৬ জন।