করোনায় ব্যর্থতার দায় নিয়ে পদত্যাগ করলেন ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রী

সংগৃহীত ছবি
Social Share

করোনাভাইরাসের বৈশ্বিক মহামারির মধ্যে দায়িত্ব পালনে ব্যর্থতার দায় স্বীকার করে পদত্যাগ করেছেন ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রী এডুয়ার্ড ফিলিপ। দেশটির প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ তার পদত্যাগ পত্র গ্রহণ করেছেন বলে বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, তিন বছর ক্ষমতায় থাকার পর পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নেন ফিলিপ। এছাড়া করোনাভাইরাসের জেরে দেশের পরিস্থিতির কারণে মন্ত্রিসভায় রদবদলে আগ্রহীও ছিলেন ম্যাক্রোঁ।

প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁর পক্ষ থেকে ঘোষণার আগেই ফিলিপের পদত্যাগ নিয়ে জল্পনা রয়েছে। তবে নতুন মন্ত্রিসভা গঠন পর্যন্ত তিনিই দায়িত্বে থাকবেন। রবিবারই নতুন সরকার গঠনে রদবদল হবে বলে জানা গেছে।

যদিও বিবিসি-র দাবি, প্রেসিডেন্টের সঙ্গে আলোচনা করেই পদত্যাগপত্র দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ফিলিপ। অবশ্যই ম্যাক্রোঁর এতে সায় রয়েছে। বৃহস্পতিবারই এক সাক্ষাৎকারে প্রধানমন্ত্রী ফিলিপের প্রশংসা করেছিলেন ম্যাক্রোঁ। তবে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য ‘নতুন সরকার গঠন’ বলেও জানিয়েছিলেন তিনি।

প্রসঙ্গত, ফরাসি সরকারে প্রেসিডেন্টের পাঁচ বছরের মেয়াদকালে প্রধানমন্ত্রী পরিবর্তন নতুন নয়। দেশে করোনা পরিস্থিতি সামলানো নিয়ে যথেষ্টই চাপে রয়েছে ম্যাক্রোঁর সরকার। ফ্রান্সে করোনা আক্রান্ত ১ লাখ ৬৬ হাজার। মৃত্যু হয়েছে ২৯ হাজারের বেশি মানুষের।