করোনার কারণে সব সভা বাতিল করলেন মমতা, শেষ ২ দফায় শুধুই ভার্চুয়াল বক্তৃতা

38
Social Share

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর পথে হেঁটেই নিজের যাবতীয় নির্বাচনী জনসভা বাতিল করে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার রাতে নিজের টুইটার হ্যান্ডল থেকে মমতা ঘোষণা করেন, ‘রাজ্য তথা দেশের কোভিড পরিস্থিতির দিকে নজর রেখে নির্বাচন কমিশন একটি নির্দেশ জারি করেছে। নির্বাচন কমিশনের নির্দেশ মেনে আমি আমার সমস্ত পূর্ব নির্ধারিত জনসভা বাতিল করছি। আগামীতে ভার্চুয়াল প্ল্যাটফর্মেই জনসংযোগ করব আমরা। আমাদের ভার্চুয়াল সভার কর্মসূচি শীঘ্রই জানিয়ে দেওয়া হবে’। মুখ্যমন্ত্রীর এমন ঘোষণার পরপরই দলীয় স্তরে জানিয়ে দেওয়া হয়, শুক্রবার দুপুর সাড়ে ১২টায় পশ্চিম বর্ধমান জেলার ৯টি আসনের তৃণমূল প্রার্থীদের নিয়ে দুর্গাপুরের একটি হোটেলে সাংবাদিক বৈঠক করবেন মমতা। সূত্রের খবর, এই সাংবাদিক বৈঠক নেটমাধ্যমে সম্প্রচারিত হবে। যা বহুলাংশে ভোট প্রচারের কাজে আসবে বলেই দাবি তৃণমূল নেতৃত্বের।

প্রসঙ্গত, করোনা পরিস্থিতির কারণে পশ্চিমবঙ্গের ভোটে রোড শো এবং মিছিল বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে কমিশন জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার সন্ধে ৭টা থেকেই তা কার্যকর করা হবে। নতুন নির্দেশে পদযাত্রা, রোড শো, বাইক মিছিলে নিষেধাজ্ঞার পাশাপাশি জনসভাতেও নিয়ন্ত্রণের কথা বলা হয়েছে। কমিশন আরও জানিয়েছে, সর্বোচ্চ ৫০০ জনকে নিয়ে সভা করা যাবে। তবে সেই সভাতেও কঠোর ভাবে মেনে চলতে হবে দূরত্ববিধি। বৃহস্পতিবারই প্রধানমন্ত্রী তাঁর ৪টি সভা বাতিল করেন পশ্চিমবঙ্গে। বদলে শুক্রবার বিকেল ৫টায় দিল্লি থেকে ভার্চুয়াল সভা করার ঘোষণা করেন তিনি। উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবারই রাজ্যে কোভিড পরিস্থিতিতে ভোট প্রক্রিয়া পরিচালনা নিয়ে কমিশন গাফিলতি করেছে বলে ভর্ৎসনা করেছে কলকাতা হাইকোর্ট। তারপরেই বড় জনসভা ও রোড শো বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হল বলেই মনে করা হচ্ছে।