করোনা সংকট নিয়ে বৈঠকে বসছে জাতিসংঘ

জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ। ফাইল ছবি
Social Share

মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতি করোনাভাইরাস নিয়ে প্রথমবারের মতো বসতে যাচ্ছে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ।

বার্তা সংস্থা এএফপির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বৃহস্পতিবার ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে করোনা নিয়ে বৈঠকের দিন ঠিক করা হয়েছে। তবে ওই বৈঠকে করোনা নিয়ে কী ধরনের আলোচনা হতে পারে, সে ব্যাপারে তেমন কিছু জানা যায়নি।

এর আগে গত সপ্তাহে জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস এ ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্র, চীনসহ আরো ৯টি দেশকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের উহান শহর থেকে প্রথম ছড়ায় প্রাণঘাতী এ ভাইরাস। দেশটিতে দ্বিতীয় দফায় তা ছড়াতে পারে বলে সতর্ক করেছেন বিশেষজ্ঞরা।

করোনাভাইরাস মহামারীতে অচল গোটা বিশ্ব। হু হু করে বাড়ছে আক্রান্ত রোগী ও মৃতের সংখ্যা। বিশ্বের অন্তত ১৩১টি দেশে চলছে লকডাউন।

থেমে নেই মৃত্যুর মিছিল, প্রতি মুহুর্তেই বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। করোনায় প্রাণহানি ও অসুস্থদের পরিসংখ্যান রাখা প্রতিষ্ঠান ওয়ার্ল্ড ওমিটারের তথ্য অনুযায়ী মঙ্গলবার সকাল ৮টা পর্যন্ত গোটা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ১৩ লাখ ৪৬ হাজার ৫৬৬ জন।

মারা গেছে ৭৪ হাজার ৬৯৭ জন। সবচেয়ে খারাপ অবস্থা ইউরোপ ও আমেরিকার। বেশিরভাগ মৃত্যু হয়েছে এ দুই মহাদেশে। বিশেষ করে যুক্তরাষ্ট্র, ইতালি ও স্পেনে প্রতিদিন মৃত্যুর নতুন রেকর্ড হচ্ছে।

ওয়ার্ল্ড ওমিটারসের তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু ইতালিতে- ১৬ হাজার ৫২৩ জন। এরপরই আছে স্পেন। দেশটিতে মারা গেছেন ১৩ হাজার ৩৪১ জন। এ দুই দেশের পর বেশি মৃত্যু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। সেখানে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ১০ হাজার ৮৭১ জন।

মৃতের সংখ্যায় এরপর যথাক্রমে রয়েছে- ফ্রান্সে ৮ হাজার ৯১১ জন, যুক্তরাজ্যে ৫ হাজার ৩৭৩ জন, ইরানে ৩ হাজার ৭৩৯ জন, চীনে ৩ হাজার ৩৩১ জন।

করোনাভাইরান গোটা বিশ্বকে মৃত্যুপুরী বানিয়ে ফেলছে। মানুষকে করে ফেলেছে গৃহবন্দি। এ অবস্থায় সবার উচিৎ ঐক্যবদ্ধ হয়ে এ মহামারীর বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলা।