কথার খেলাপ : জমি ফেরত দিতে হবে গাভাস্কারকে!

Social Share

ক্রিকেট ফাউন্ডেশন গড়ার নামে জমি নিয়ে ৩ দশক ধরে ফেলে রেখেছেন ভারতের ক্রিকেট কিংবদন্তি সুনিল গাভাস্কার। এবার সুনীল গাভাস্কার ক্রিকেট ফাউন্ডেশন ট্রাস্টকে ৩১ বছর আগে দেওয়া জমি ফিরিয়ে নিতে চায় মহারাষ্ট্র হাউজিং অ্যান্ড এরিয়া ডেভেলপমেন্ট অথরিটি (এমএইচএডিএ)। ১৯৮৮ সালে গাভাস্কারকে বান্দ্রায় ২১ হাজার ৩৪৮ বর্গ ফুটের জমি দিয়েছিল এমএইচএডিএ। কিন্তু তিন দশক পেরিয়ে গেলেও সেই জমিতে কোনো কাজ শুরু হয়নি। যেমন ছিল ঠিক তেমনই পড়ে রয়েছে সেই জমি।

এমএইচএডিএর সহ-সভাপতি এবং মুখ্য কার্যনির্বাহী আধিকারিক মিলিন্দ মাহিস্কর জানান, জমি ফেরত নেওয়ার জন্য সরকারের কাছে তাদের পক্ষ থেকে ইতিমধ্যেই প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। ১৯৮৮  সালে গাভাস্কার ট্রাস্টকে জমি দেওয়ার সময় শর্ত ছিল যে, জমি পাওয়ার তিন মাসের মধ্যে অ্যাকাডেমির নির্মাণকাজ শুরু করতে হবে এবং তিন বছরের মধ্যে কাজ শেষ করতে হবে। কিন্তু সেই কাজ এখনও শুরু না হওয়ায়, জমি ফিরিয়ে নেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।

মহারাষ্ট্রের সাবেক মন্ত্রী এবং স্থানীয় বিধায়ক আশিস শেলার মহারাষ্ট্র হাউজিং অ্যান্ড এরিয়া ডেভেলপমেন্ট অথরিটির জমি ফিরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্তকে সমর্থন করে মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরেকে চিঠি দিয়ে বলেছেন, ‘গাভাস্কারের ক্রিকেটীয় প্রজ্ঞা নিয়ে নিয়ে আমরা গর্বিত। কিন্তু জমি দেওয়ার পরে তিন দশক পেরিয়ে গেলেও তার কাজ শুরু হয়নি। এ রকম অবস্থায় মহারাষ্ট্র হাউজিং অ্যান্ড এরিয়া ডেভেলপমেন্ট যদি সেই জমিতে ক্রিকেট অ্যাকাডেমি তৈরির সিদ্ধান্ত বহাল রাখে তা হলে তাকে আমি সমর্থন জানাচ্ছি।