এমপি নির্বাচিত হয়েই পরাজিত প্রার্থীর বাড়িতে শুভ

কাজল আর্য, স্টাফ রিপোর্টার:

131
নির্বাচিত
Social Share

টাঙ্গাইল-৭ (মির্জাপুর ) আসনের উপ-নির্বাচনে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী খান আহমেদ শুভ। বিজয়ী হয়েই নির্বাচনের পরেরদিন সোমবার বিকেলে তিনি ছুটে যান মূল প্রতিদ্বন্দ্বী জাতীয় পার্টির প্রার্থী জহিরুল ইসলাম জহিরের বাড়িতে। এছাড়া প্রয়াত এমপি একাব্বর হোসেনের বাসায় গিয়ে তাঁর স্ত্রীকে সালাম করেন। কুশল বিনিময়ের এসব ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে সবাই কমেন্টসের মাধ্যমে প্রশংসা জানাচ্ছেন।

দেখা যায়, খান আহমেদ শুভ পরাজিত প্রার্থী জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য জহিরুল ইসলাম জহিরের বাড়িতে গিয়ে কোলাকুলি করেছেন। এরপর একে অপরকে মিষ্টি মুখ করাচ্ছেন।

এদিকে প্রয়াত এমপির একাব্বর হোসেনের বাড়িতে গিয়ে তাঁর সহধর্মিনী ঝর্ণা হোসেনকে সালাম করেছেন। সেখানে উপস্থিত ছিলেন একাব্বর হোসেনের ছেলে ব্যারিস্টার তাহরিম সীমান্তসহ অন্যান্য নেতাকর্মী। পরে একে অপরকে মিষ্টি খাওয়ান। এছাড়া মির্জাপুরের বিভিন্ন সামাজিক, পেশাজীবী ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের সাথে দেখা শুভেচ্ছা বিনিময় করছেন। সবাই নতুন এমপি ফুল দিয়ে বরণ করে নিচ্ছেন।

জহিরুল ইসলাম জহির বলেন, নব-নির্বাচিত এমপি শুভ আমার বাড়িতে এসে দেখা করেছেন। তিনি বলেছেন চাচা আমি আপনার সন্তান তুল্য। সবাই মিলেমিশে মির্জাপুরের জন্য কাজ করবো । আমাদের মধ্যে কোন ভেদাভেদ থাকবে না। তাঁর কথায় আমি সন্তুষ্ট।

টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও এফবিসিসিআইয়ের পরিচালক আবু নাসের বলেন, নির্বাচনে জয়ী হওয়ার পর খান আহমেদ শুভ এমপির কুশল বিনিময়ের ছবিগুলো ফেসবুকে দেখেছি। এর মাধ্যমে তাঁর রাজনৈতিক শিষ্টাচার ও মানবিক সৌন্দর্য ফুটে উঠেছে। একজন জনপ্রতিনিধির ব্যবহার ও কর্মদ্বারা এভাবেই মানুষের অন্তরে স্থায়ীভাবে স্থান করে নিতে পারেন।

নব-নির্বাচিত এমপি খান আহমেদ শুভ বলেন, নির্বাচনে জয় পরাজয় থাকবেই। সবাই একত্রে জনগণের জন্য কাজ করা উচিত। বঙ্গবন্ধ আদর্শ বুকে ধারণ করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমি সবাইকে সাথে নিয়ে স্বপ্নের মির্জাপুর গড়ে তোলার চেষ্টা করবো।

উল্লেখ্য, ১৬ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত উপ-নির্বাচেন ১ লাখ ৪ হাজার ৫৯ ভোট বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন খান আহমেদ শুভ। তাঁর নিবটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জহিরুল ইসলাম জহির পেয়েছেন ১৬ হাজার ৭ শত ৭৩ ভোট। অন্য তিনজন প্রার্থী জামানত হারিয়েছেন।

………………………………………………………………………………………………..

উল্লেখ্য, ১৬ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত উপ-নির্বাচেন ১ লাখ ৪ হাজার ৫৯ ভোট বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন খান আহমেদ শুভ। তাঁর নিবটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জহিরুল ইসলাম জহির পেয়েছেন ১৬ হাজার ৭ শত ৭৩ ভোট। অন্য তিনজন প্রার্থী জামানত হারিয়েছেন।