ইসলাম ধর্মের শান্তির বাণী বিশ্ববাসীর কাছে সঠিকভাবে তুলে ধরতে হবে : মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী

Social Share

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, ইসলাম হচ্ছে শান্তির ধর্ম। তাই ইসলাম ধর্মের বিশ্ব শান্তির অমর বাণী বিশ্ববাসীর কাছে সঠিকভাবে তুলে ধরাই হচ্ছে আমাদের দায়িত্ব।
আজ সকালে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিশন চত্ত্বরে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন।
আনজুমানে রাহমানিয়া মইনীয়া মাইজভান্ডারীয়া আয়োজিত আলোচনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন শাহসূফি মাওলানা সৈয়দ সাইফুদ্দিন আহমদ মাইজভান্ডারী।
অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন শাহজাদা সৈয়দ মেহবুব এ মইনুদ্দীন, শাহজাদা সৈয়দ মাশুক এ মইনুদ্দীন। এতে আরো উপস্থিত ছিলেন আনজুমানে রাহমানিয়া মইনীয়া মাইজভান্ডারীয়ার সহ-সভাপতি এডভোকেট ওয়াজ উদ্দিন মিয়া, রুহুল আমীন ভুঈয়া চাঁদপুরী প্রমুখ।
আ.ক.ম মোজাম্মেল হক বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষা করে উন্নয়নের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। নবীজির আদর্শকে লালন করে ইসলাম ধর্মের প্রচার ও প্রসার ঘটানোই হবে প্রকৃত মুসলমানের দায়িত্ব ও কর্তব্য।
মন্ত্রী বলেন, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ হিসেবে বিশ্বে বাংলাদেশ হচ্ছে উজ্জ¦ল রোল মডেল। কোন ধর্মের অনুসারিরাই তাদের ধর্মীয় ব্যক্তিত্বের অবমাননা মানতে পারে না। তিনি অন্য ধর্ম বিশ্বাসের উপর আঘাত না করতে সকলের প্রতি আহবান জানান।
মাওলানা সৈয়দ সাইফুদ্দিন আহমদ মাইজভান্ডারী বলেন, সাম্য মৈত্রী ও মানবিক সমাজ গড়ার লক্ষ্যে পৃথিবীতে ১২ই রবিউল আউয়াল বিশ্ব মানবতার মুক্তির দূত হিসেবে মহানবী (দ.)- এর শুভাগমন ঘটেছে। ইসলাম শান্তির ধর্ম হিসেবে মানুষের মধ্যে ভ্রাতৃত্ববোধ তৈরিতে বিশেষ অবদান রাখছে।
এর আগে একটি শোভাযাত্রা নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। এতে মাইজভান্ডারীয়ার বিপুল সংখ্যক ভক্ত অংশ নেন। পরে মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।