ইতিহাসের ৬ষ্ঠ অধিনায়ক হিসেবে অদ্ভুত রেকর্ড কোহলির

20
Social Share

চেন্নাইয়ের দ্বিতীয় টেস্টের ভাগ্যে কী ঘটতে যাচ্ছে তা একদিন আগেই সবার বোঝা হয়ে গিয়েছিল। বাস্তবেও সেটাই হয়েছে। ৩১৭ রানে দ্বিতীয় টেস্ট জিতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজে সমতা ফেরাল ভারত। পরের টেস্টটি দিবা-রাত্রির। ভেন্যু আহমেদাবাদ। প্রথম টেস্টে ভারতীয় দল কুলদীপ যাদবকে না খেলিয়ে শাহবাজ নাদিমকে সুযোগ দিয়েছিল। দ্বিতীয় টেস্টে দলে ফিরে উইকেট শিকার সহ অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে দারুণ এক রেকর্ড উপহার দিলেন কুলদীপ যাদব।

প্রথম ইনিংসে খুব বেশি বোলিংয়ের সুযোগ পাননি কুলদীপ। দ্বিতীয় ইনিংসেও রুট তাকে রিভার্স সুইপ মারতে গিয়ে সহজ ক্যাচ তুলে দেন। যা পয়েন্টে দাড়িয়ে তালুবন্দি করতে ব্যর্থ হন মোহাম্মদ সিরাজ। বোলিংয়ে আত্মবিশ্বাস বাড়ানোর জন্য প্রয়োজন ছিল একটি উইকেটের। একসময় ইংল্যান্ডের উইকেটরক্ষক বেন ফোকস সুইপ করতে গিয়ে মোহাম্মদ সিরাজের হাতে তালুবন্দি হতেই যেন সিরাজ নিজেকে ফিরে পান। আর এই উইকেটটি নেওয়ার মাধ্যমে তিনি কোহলিকে এক বিরল রেকর্ডের তালিকায় স্থান করে দেন।

বিশ্ব ক্রিকেটের ইতিহাসে বিরাট কোহলি হলেন ষষ্ঠ অধিনায়ক, যার অধিনায়কত্বে বোলাররা ১০০০ এর বেশি উইকেট নিয়েছেন। তার আগে পাঁচজন অধিনায়কের নেতৃত্বে কোনো দল এই বিরল কৃতিত্ব অর্জন করেছিল। তবে কোহলির এই রেকর্ড আরও বেশি তাৎপর্যপূর্ণ। কারণ ২৫.৬১ গড়ে এবং ৫২.৭ স্ট্রাইক রেটের এমন ঈর্ষণীয় পরিসংখ্যানে আর কোনো অধিনায়কের নেতৃত্বে দেখা যায়নি। রিকি পন্টিং, মহেন্দ্র সিং ধোনিদেরও এত দুর্দান্ত পরিসংখ্যান নেই।