আর্জেন্টিনা বনাম ব্রাজিল: দুই দলে থাকবেন কারা?

আগামীকাল বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে ছয়টায় বেলো হরিজন্তেতে আগুন ম্যাচ। মুখোমুখি হচ্ছে ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা। এ ম্যাচে দুই দলের একাদশ কেমন হবে?

কোপা আমেরিকার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ও উত্তেজনাময় ম্যাচটা এবার সেমিফাইনালেই হয়ে যাচ্ছে। ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে আগামীকাল সকালে মুখোমুখি হচ্ছে ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা। ম্যাচকে ঘিরে এর মধ্যেই দুই দলের সমর্থকদের মধ্যে উত্তেজনা কাজ করা শুরু করেছে। দুই দলের হয়ে কে খেলবেন, আর কে খেলবেন না, এই নিয়ে দুই কোচ এর মধ্যেই পরিকল্পনা করা শুরু করে দিয়েছেন। কেমন হবে আগামীকাল দুই দলের একাদশ? আসুন দেখে নেওয়া যাক।

ম্যাচ শুরুর আগে এর মধ্যেই কিছু সুখবর পেয়ে গেছে ব্রাজিল। নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে এই ম্যাচেই ফিরছেন রিয়াল মাদ্রিদের ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার কাসেমিরো। গ্রুপ পর্বে দুটি হলুদ কার্ড দেখার মাশুল হিসেবে কোয়ার্টারে প্যারাগুয়ের সঙ্গে খেলতে পারেননি কাসেমিরো। তাঁর জায়গায় খেলেছিলেন নাপোলির অ্যালান। ওদিকে মাম্পসের কারণে কোয়ার্টারে না খেলা উইঙ্গার রিচার্লিসনও সুস্থ হয়ে উঠেছেন। মূল একাদশে না থাকলেও বিকল্প খেলোয়াড়ের তালিকায় অবশ্যই রাখা হবে তাঁকে। তবে ডান হাঁটুর ব্যথাটা এখনো ভোগাচ্ছে লেফটব্যাক ফিলিপে লুইসকে। ব্রাজিল কোচ তিতে শেষ মুহূর্ত অপেক্ষা করবেন লুইসের ফিট হওয়ার জন্য, লুইস পুরোপুরি সুস্থ না হলে অ্যালেক্স সান্দ্রোকে নামানো হবে লেফটব্যাক হিসেবে। গোলবারে যথারীতি থাকবেন লিভারপুলের চ্যাম্পিয়নস লিগজয়ী গোলরক্ষক অ্যালিসন। রাইটব্যাকে অধিনায়ক দানি আলভেসের জায়গা পাকা। সেন্ট্রাল ডিফেন্ডার হিসেবে জুটি বাঁধবেন পিএসজির জোড়া ডিফেন্ডার থিয়াগো সিলভা ও মার্কিনহোস। ৪-২-৩-১ ছকে মিডফিল্ডে কাসেমিরোর সঙ্গী হবেন বার্সেলোনার আর্থার মেলো। এই দুজনের সামনে দুই উইঙ্গার ও একজন আক্রমণাত্মক মিডফিল্ডার হিসেবে খেলবেন যথাক্রমে গ্রেমিওতে খেলা উইঙ্গার এভারটন, ম্যানচেস্টার সিটির স্ট্রাইকার গ্যাব্রিয়েল জেসুস ও বার্সেলোনার ফিলিপ কুতিনহো। সবার সামনে মূল স্ট্রাইকার হিসেবে খেলবেন লিভারপুলের রবার্তো ফিরমিনো।

ওদিকে প্রতি ম্যাচের এক দিন আগেই নিজের মূল একাদশ বলে দেওয়া আর্জেন্টিনার কোচ লিওনেল স্কালোনি কোয়ার্টারের মতো সেমিতেও মূল একাদশ ফাঁস করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন। আগেভাগে মূল একাদশ বলে দেওয়ার কারণে প্রতিপক্ষ কোচ নিজের পরিকল্পনা সাজানোর এন্তার সময়-সুযোগ পান। যে কারণে কলম্বিয়া, প্যারাগুয়ে ও কাতারের বিপক্ষে ম্যাচগুলোতে ভুগেছেন মেসিরা। তবে এটা নিশ্চিত করেছেন, মূল একাদশে মেসি-আগুয়েরো অবশ্যই থাকছেন। আর্জেন্টিনার পত্রপত্রিকার খবর মানলে, গোলবারের নিচে যথারীতি থাকছেন দুর্দান্ত ফর্মে থাকা গোলরক্ষক ফ্রাঙ্কো আরমানি। আরমানির সামনে সেন্ট্রাল ডিফেন্সে জুটি বাঁধবেন ম্যানচেস্টার সিটির নিকোলাস ওটামেন্ডি ও ফিওরেন্টিনার জার্মান পেজ্জেলা। রাইটব্যাকে খেলবেন টটেনহামের হুয়ান ফয়থ ও লেফটব্যাকে যথারীতি আয়াক্সের নিকোলাস তাগলিয়াফিকো। মিডফিল্ডে কোন চারজন খেলবেন, সে নিয়ে রয়েছে ধোঁয়াশা। গত ম্যাচে পিএসজির লিয়ান্দ্রো পারেদেসকে পেছনে রেখে সামনে খেলেছিলেন স্পোর্টিং লিসবনের মার্কাস আকুনিয়া ও উদিনেসের রদ্রিগো ডি পল। দুজনই মূলত উইঙ্গার, তাও সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার হিসেবে ভেনেজুয়েলার বিপক্ষে বেশ ভালো খেলেছেন। এখন তাদের ওপরেই কি স্কালোনি ভরসা রাখবেন? নাকি ভেনেজুয়েলার চেয়ে অপেক্ষাকৃত শক্তিশালী ব্রাজিলের বিপক্ষে গিদো রদ্রিগেজ আর জিওভান্নি ল সেলসোর মতো মিডফিল্ডারকে খেলাবেন, সে নিয়ে প্রশ্ন থেকে যাচ্ছে। ওপরে আক্রমণভাগে মেসি-আগুয়েরোর সঙ্গী হবেন গত ম্যাচে গোল করা লওতারো মার্টিনেজ, এটা মোটামুটি নিশ্চিত।

প্রশ্নগুলোর উত্তর জানার জন্য ঘুমজড়ানো চোখে আগামীকাল সকাল সাড়ে ছয়টায় আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল দেখতেই হচ্ছে!