আজ শিল্পকলা একাডেমিতে বসন্ত উৎসব

45
Social Share

শীতের জীর্ণতাকে অতিক্রম করে নবরঙে. নবরাগে আমাদের সামনে হাজির হয়েছে ঋতুরাজ বসন্ত। কবি সুভাষ মুখোপাধ্যায় বলেছেন – ‘ফুল ফুটুক আর না ফুটুক আজ বসন্ত।’ বসন্ত যে কেবল প্রাকৃতিক পরিবর্তনের নয়, এটা যে আমাদের হৃদয়েরও ব্যাপার, বসন্ত যে আমাদের মনকেও বিভিন্নভাবে নন্দিত করে, কবি সেটিই বুঝাতে চেয়েছেন। আজ আমাদের হৃদয়ের দখিন দুয়ার খোলা, মৌমাছিদের গুঞ্জরণ, চারিদিকে কচি-পাতার শোভা আর কোকিলের কুহুতানে জেগে ওঠার দিন আজ। কবিগুরুর গানে তাই বসন্ত এত প্রাণময় –‘আহা আজি এ বসন্তে, এত ফুল ফোটে, এত বাঁশি বাজে, এত পাখি গায়।’ লাল-হলুদ আর বাসন্তী রঙে প্রকৃতির সাথে নিজেদের সাজিয়ে আজ বসন্তের নব-উচ্ছ্বাসে ভাসবে বাঙালি।

ঋতুরাত বসন্তের আগমে প্রকৃতি আজ অপরূপ রঙে সেজেছে। নব ফাল্গুনের এই বর্ণিল আবাহনে আজ ১৪ ফেব্রুয়ারি (১ ফাল্গুন ১৪২৭) বিকাল ৪টায় একাডেমির নন্দনমঞ্চে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি আয়োজন করেছে বসন্ত উৎসব ২০২১।

আলোচনা পর্বে প্রধান অতিথি হিসেবে অংশগ্রহণ করবেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জনাব কে এম খালিম এমপি। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব জনাব মোঃ বদরুল আরেফীন।

আলোচনা শেষে সাংস্কৃতিক পরিবেশনায় রিয়াদ আল ইসলাম এর নৃত্য পরিচালনায় বাংলাদেশ ওয়ার্ল্ড পারফরমিং আর্টসের শিশুশিল্পীবৃন্দ, অনিক বোসের নৃত্য পরিচালনায় স্পন্দন নৃত্যদলের শিশুশিল্পীবৃন্দ, কবিরুল ইসলাম রতন এর নৃত্য পরিচালনায় নৃত্যালোক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের নৃত্যশিল্পীবৃন্দ, ফারহানা চৌধুরী বেবী‘র নৃত্য পরিচালনায় বাংলাদেশ একাডেমি অফ ফাইন আর্টস এর নৃত্যশিল্পীবৃন্দ, তামান্না রহমান এর নৃত্য পরিচালনায় নৃত্যম এর শিল্পীবৃন্দ, এম আর ওয়াসেক এর নৃত্য পরিচালনায় নন্দন কলা কেন্দ্র’র শিল্পীবৃন্দ এবং ফিফা চাকমা নৃত্য পরিচালনায় মারমা ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী সম্প্রদায়, ওয়ার্দা রিহ্যাব এর নৃত্য পরিচালনায় ধৃতি নত্যনালয় এর শিল্পীবৃন্দ সমবেত নৃত্য পরিবেশন করবে।

দ্বৈত সঙ্গীত পরিবেশন করবেন শিল্পী সাজেদ আকবর ও সালমা আকবর, ইবরার টিপু-বিন্দু কনা এবং খাইরুল আনাম শাকিল-কল্পনা আনাম । একক সঙ্গীত পরিবেশন করবেন শিল্পী অপু আমান, সাব্বির, বিউটি এবং দিতি সরকার। দলীয় সঙ্গীত পরিবেশন করবে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি সঙ্গীতদল, বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি ভাওয়াইয়া সঙ্গীতদল, সরকারি সঙ্গীত কলেজ এবং জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিল্পীবৃন্দ। নাটকের অংশবিশেষ পাঠ করবেন শহীদুজ্জামান সেলিম ও রোজী সিদ্দিকী এবং অনন্ত হীরা ও নূনা আফরোজ। সবশেষে ব্যান্ডদল ‘স্পন্দন’ এর পরিবেশনায় পরিবেশিত হবে ব্যান্ড সঙ্গীত।

শান্তিনিকেতনে কবিগুরু রবীন্দ্রনাথের হাত ধরেই ‘বসন্ত উৎসব’ উদযাপনের সূচনা ঘটেছে। বসন্ত নিয়ে রবীন্দ্রনাথ,  নজরুলসহ আমাদের সকল কবি, শিল্পী সাহিত্যিকরা লিখেছেন, এঁকেছেন ছবি এবং গেয়েছেন বসন্তের বন্দনাগীত। আমাদের দেশে নব্বইয়ের দশক থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের বকুলতলায় বসন্ত উৎসব উদযাপিত হয়ে আসছে।

শুরুর দিকে এ উৎসব আয়োজনে ভূমিকা পালন করেছেন রবীন্দ্র গবেষক ও সংগঠক ওয়াহিদুল হক এবং কবি শামসুর রাহমান। বর্তমানে দেশের প্রায় প্রতিটি জেলা শহরে বসন্ত উৎসব উদযাপতি হয়। বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির আয়োজনে এক দশকের অধিককাল ধরে বসন্ত উৎসব উদযাপিত হয়ে আসছে।

বসন্তসহ ঋতুভিত্তিক এ আয়োজন আমাদের সংস্কৃতি চর্চার জন্য অত্যন্ত তাৎপযবহ। ছয় ঋতুর বৈচিত্র্য আমাদের সংস্কৃতিকে নানাভাবে আলোকিত ও প্রভাবিত করেছে।