আগুনে পুড়ে শ্রীলঙ্কার উপকূলে ডুবছে রাসায়নিকবাহী জাহাজ, পরিবেশ বিপর্যয়ের শঙ্কা

43
Social Share

রাসায়নিকবাহী জাহাজ এক্স-প্রেস পার্ল গত দুই সপ্তাহ ধরে আগুনে পুড়ছে শ্রীলঙ্কার উপকূলে। এখন ডুবে যাওয়ার মুখে রয়েছে জাহাজটি। উদ্ধারকাজে নিয়োজিত কোম্পানি জানিয়েছে, জাহাজটি যে অবস্থায় আছে সেভাবেই ডুবে যাচ্ছে।

আর এতে করে জাহাজটিতে জ্বালানি হিসেবে থাকা কয়েকশ টন তেল সাগরে ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। তেল ছড়িয়ে পড়লে বিধ্বংসী বিপর্যয়ের মুখে পড়বে আশেপাশের সামুদ্রিক পরিবেশ।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি বুধবার (২ জুন) এ খবর দিয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়, শ্রীলঙ্কা ও ভারতীয় নৌবাহিনী আগুন নেভাতে এবং জাহাজটির ডুবে যাওয়া ঠেকাতে যৌথভাবে কাজ করছিল। তবে অশান্ত সমুদ্র এবং বর্ষার বাতাস এই অভিযানকে ব্যাহত করেছে।

শ্রীলঙ্কা নেভির মুখপাত্র ক্যাপ্টেন ইন্দিকা সিলভা জানিয়েছেন, সামুদ্রিক দূষণ কমানোর জন্য জাহাজটি ডুবে যাওয়ার আগে এটিকে গভীর সমুদ্রে টেনে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে কিন্তু জাহাজের পেছনের অংশ ড্রিফট করেছে। পরিবেশবিদ অজন্তা পেরেরা জানিয়েছেন, নাইট্রিক এসিড, তেল এবং অন্যান্য বিপজ্জনক পদার্থসহ যদি জাহাজটি ডুবে তাহলে সমুদ্রতল ধ্বংস হয়ে যাবে।

জাহাজটি গত ১৫ মে ভারতের গুজরাট রাজ্যের হাজিরা বন্দর থেকে যাত্রা করেছিল। কলম্বো বন্দরের উপকূলে নোঙর করা জাহাজটি বহনকারী একটি কন্টেইনার থেকে রাসায়নিক চুইয়ে পড়ে আগুন লাগার কথা জানানো হয়। ১৮৬ মিটার দীর্ঘ এই জাহাজটিতে এক হাজার ৪৮৬টি কন্টেইনারে ২৫ টন নাইট্রিক এসিডসহ আরও কিছু রাসায়নিক পদার্থ এবং অন্যান্য জিনিসপত্র ছিল। গত সপ্তাহে জাহাজাটির ক্যাপ্টেনসহ অন্যান্য ক্রুদের উদ্ধার করা হয়। শ্রীলঙ্কার কর্মকর্তারা ক্যাপ্টেনের বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করেছেন।