‘অশনি’ ভারতে আঘাত হানার পর দুর্বল হয়ে নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে : ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী

61
'অশনি' ভারতে
Social Share

ঘূর্ণিঝড় পরিস্থিতি তুলে ধরে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান বলেছেন, ঘূর্ণিঝড়  ‘অশনি’ ভারতে র অন্ধ্র প্রদেশে আঘাত হানার পর এটি দুর্বল হয়ে নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। বাংলাদেশে এটি আঘাত হানার আশঙ্কা নেই।

আজ মঙ্গলবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে ঘূর্ণিঝড় পরিস্থিতি নিয়ে ব্রিফ করতে গিয়ে তিনি এ কথা বলেন। 

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ভবিষ্যতে রোহিঙ্গারা যাতে তাদের মাতৃভূমি মিয়ানমারে ফিরতে পারে, সেজন্য সম্মিলিত উদ্যোগ দরকার। ইউএসএআইডি কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্প নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছে। ভাসানচর নিয়ে তাদের কিছু পর্যবেক্ষণ রয়েছে। যাবতীয় হালনাগাদ তাদের জানানো হয়েছে। প্রতিনিধিদল কক্সবাজারে কাজ করার জন্য আলাদা ভবন চেয়েছে। তাদের বলা হয়েছে যেন শরণার্থী কমিশনের কার্যালয়ে তাদের অফিস বানায়। 

এনামুল রহমান বলেন, ৩৫ হাজার রোহিঙ্গার তালিকা দেয়া হয়েছে মিয়ানমারকে। কিন্তু দেশটি কিছু জানায়নি।

………………………………………………………………………………………..

ঘূর্ণিঝড় পরিস্থিতি তুলে ধরে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান বলেছেন, ঘূর্ণিঝড়  ‘অশনি’ ভারতে র অন্ধ্র প্রদেশে আঘাত হানার পর এটি দুর্বল হয়ে নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। বাংলাদেশে এটি আঘাত হানার আশঙ্কা নেই।

আজ মঙ্গলবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে ঘূর্ণিঝড় পরিস্থিতি নিয়ে ব্রিফ করতে গিয়ে তিনি এ কথা বলেন। 

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ভবিষ্যতে রোহিঙ্গারা যাতে তাদের মাতৃভূমি মিয়ানমারে ফিরতে পারে, সেজন্য সম্মিলিত উদ্যোগ দরকার। ইউএসএআইডি কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্প নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছে। ভাসানচর নিয়ে তাদের কিছু পর্যবেক্ষণ রয়েছে। যাবতীয় হালনাগাদ তাদের জানানো হয়েছে। প্রতিনিধিদল কক্সবাজারে কাজ করার জন্য আলাদা ভবন চেয়েছে। তাদের বলা হয়েছে যেন শরণার্থী কমিশনের কার্যালয়ে তাদের অফিস বানায়। 

এনামুল রহমান বলেন, ৩৫ হাজার রোহিঙ্গার তালিকা দেয়া হয়েছে মিয়ানমারকে। কিন্তু দেশটি কিছু জানায়নি।

ঘূর্ণিঝড় পরিস্থিতি তুলে ধরে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান বলেছেন, ঘূর্ণিঝড়  ‘অশনি’ ভারতে র অন্ধ্র প্রদেশে আঘাত হানার পর এটি দুর্বল হয়ে নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। বাংলাদেশে এটি আঘাত হানার আশঙ্কা নেই।

আজ মঙ্গলবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে ঘূর্ণিঝড় পরিস্থিতি নিয়ে ব্রিফ করতে গিয়ে তিনি এ কথা বলেন। 

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ভবিষ্যতে রোহিঙ্গারা যাতে তাদের মাতৃভূমি মিয়ানমারে ফিরতে পারে, সেজন্য সম্মিলিত উদ্যোগ দরকার। ইউএসএআইডি কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্প নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছে। ভাসানচর নিয়ে তাদের কিছু পর্যবেক্ষণ রয়েছে। যাবতীয় হালনাগাদ তাদের জানানো হয়েছে। প্রতিনিধিদল কক্সবাজারে কাজ করার জন্য আলাদা ভবন চেয়েছে। তাদের বলা হয়েছে যেন শরণার্থী কমিশনের কার্যালয়ে তাদের অফিস বানায়। 

এনামুল রহমান বলেন, ৩৫ হাজার রোহিঙ্গার তালিকা দেয়া হয়েছে মিয়ানমারকে। কিন্তু দেশটি কিছু জানায়নি।