অর্থকষ্টে পড়েই মহামারীর মধ্যে শুটিং করেছেন শ্রুতি!

56
Social Share

ভারতের মহামারী করোনাভাইরাস পরিস্থিতি দিন দিন খারাপ হচ্ছে। কোথাও কোথাও লকডাউনও আরোপ করা হচ্ছে। এর মধ্যেও শুটিং করেছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্রুতি হাসান। তার ব্যাখ্যাও দিয়েছেন জনপ্রিয় অভিনেতা ও রাজনীতিবিদ কমল হাসান ও অভিনেত্রী সারিকার সন্তান শ্রুতি।

৩৫ বছর বয়সী শ্রুতি আর্থিকভাবে স্বাধীনভাবে চলতে চান। এক দশক ধরে বাবা-মা থেকে আলাদা হয়ে নিজের বাড়িতে থাকছেন এ অভিনেত্রী। করোনা মহামারীর আগেই বাড়ি কিনেছিলেন তিনি।

শ্রুতিকে সম্প্রতি দেখা গেছে ‘উকিল সাব’ ছবিতে। ‘বাহুবলী’ খ্যাত প্রভাসের সঙ্গে ‘সালার’ ছবিতেও দেখা যাবে শ্রুতিকে। তিনি বলেন, আমার কিছু সীমাবদ্ধতা আছে। আমার বাবা কিংবা মা আমাকে সাহায্য করছে না। নিজের খরচ নিজেকেই বহন করতে হয়। শুটিংয়ে যাওয়া ছাড়া কোনো উপায় ছিল না। আমার ঘরে থাকার মতো অবস্থা থাকলে ঘরেই থাকতাম।

করোনার মধ্যে শুটিং করা কঠিন জানিয়ে শ্রুতি বলেন, মাস্ক ছাড়া শুটিং সেটে থাকা আতঙ্কের। আমি মিথ্যা বলবো না। আমাদের শুটিংয়ে যেতে হয়েছে কারণ সবার মতো আমারও আর্থিক সীমাবদ্ধতা আছে। মহামারী শেষ হওয়া পর্যন্ত আমি লুকিয়ে থাকতে পারি না।